প্রচ্ছদ / জাতীয় / বিস্তারিত

আবারও গ্যাস থাকছে না ঢাকার বেশিরভাগ এলাকায়

প্রকাশিত: ১২:৫০ পূর্বাহ্ণ, ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

ছবি : প্রতীকী

শনিবার দিনভর ভোগান্তির রেশ না পার হতেই আগামী মঙ্গলবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যা ৬টা থেকে আবারও রাজধানীর বেশ কিছু এলাকায় গ্যাস সরবরাহ বন্ধ রাখবে তিতাস গ্যাস কোম্পানি।

মেট্রোরেলের কাজের কারণে এদিন সন্ধ্যা থেকে বুধবার সকাল ছয়টা পর্যন্ত টানা ১২ ঘণ্টা গ্যাস সরবরাহ বন্ধ রাখা হবে বলে সংস্থাটি জানিয়েছে। এদিন গ্যাস সরবরাহ বন্ধের আওতায় পড়বে রামপুরা, বনশ্রী, শান্তিনগর, কাকরাইল, গুলিস্থান, তেজগাঁও, ধানমন্ডি, আজিমপুর, মিরপুরের একাংশ।

তিতাস গ্যাস বিতরণ কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, মেট্র্রোরেলের নির্মাণ কাজের জন্য গ্যাসের পাইপলাইন পুনঃস্থাপন করা হচ্ছে। মঙ্গলবার শাহবাগে লাইন সরানো হবে। এজন্য এদিন সন্ধ্যা ৬টা থেকে বুধবার সকাল ৬টা পর্যন্ত ঢাকার একটি বড় অংশ গ্যাস সরবরাহ বন্ধ থাকবে।

উত্তরা, গুলশান, বনানি, যাত্রাবাড়ি এবং মিরপুরের কিছু অংশের গ্রাহকের সীমিত আকারে গ্যাস পাবেন বলে জানিয়েছে তিতাস।

আশুলিয়ায় সঞ্চালন লাইনে ত্রুটির কারণে গত শুক্রবার রাত থেকে শনিবার রাত পর্যন্ত গ্যাস সঙ্কটে ভোগে রাজধানীর এক তৃতীয়াংশ গ্রাহক।

শনিবার সকাল থেকে আশুলিয়া, আমিনবাজার, সাভার, উত্তরা, গাবতলী, মিরপুর, মোহম্মদপুর, ধানমন্ডিসহ আশেপাশের এলাকায় গ্যাস সরবরাহ বন্ধ ছিল। সারাদিন গ্যাস না থাকায় ভোগান্তিতে পড়েন গ্রাহকেরা। রান্না বন্ধ থাকে অধিকাংশ বাসাবাড়িতে। খাবার কিনে খেতে হয় বেশিরভাগ এলাকার বাসিন্দাদের।

রোববার লাইনের মেরামত কাজ সম্পন্ন হয়। এরপর গ্যাস সরবরাহ শুরু হয়। তিতাস জানিয়েছে, দুপুর নাগাদ পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়েছে। তবে মোহাম্মদপুর, হাজারীবাগসহ অনেক এলাকায় গতকাল সন্ধ্যা পর্যন্ত গ্যাস মেলেনি বলে অভিযোগ করেছেন অনেক গ্রাহক।

তিতাস গ্যাসের পরিচালক (অপারেশন) মো. কামরুজ্জামান বলেন, মঙ্গলবার শাহাবাগে লাইন সরানো হবে। এজন্য পুরান ঢাকা, ধানমন্ডি, মোহাম্মদপুর তেজগাঁও, গুলিস্থান, কাকরাইল, শন্তিনগর, মগবাজার, মালিবাগ রামপুরা, বনশ্রী, ফার্মগেট, আজিমপুর, শাহবাগ, মতিঝিল, সায়েদাবাদসহ রাজধানীর বেশির ভাগ এলাকায় সন্ধ্যার পর গ্যাস থাকবে না। তবে উত্তরা, গুলশান, বনানী, যাত্রাবাড়ি এবং মিরপুরের কিছু অংশের গ্রাহকেরা গ্যাস পাবেন। তবে চাপ কম থাকবে।

কামরুজ্জামান জানান, সন্ধ্যা ৬টায় বন্ধ হলেও রাত ১০ টা নাগাদ গ্যাসের চাপ কমে যাবে। কাজ শেষে বুধবার সকালের মধ্যেই গ্যাস চলে আসবে। তাই খুব বেশি ভোগান্তি হবে না।

তিনি আরও জানান, আশুলিয়ার সঞ্চালন লাইনের ত্রুটি রোববার সকালের মধ্যেই সারিয়েছে জিটিসিএল (গ্যাস ট্রান্সমিশন কোম্পানি লি.)।

কয়েকটি এলাকায় সন্ধ্যা পর্যন্ত গ্যাস মেলেনি এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, সকালেই পাইপলাইনে গ্যাস ঢুকেছে। চাপও ভালো। তাদের কাছে কোনো অভিযোগ আসেনি। কোথাও যদি গ্যাস না মেলে তা ওই এলাকার নির্দিষ্ট গ্রাহকের সমস্যা হতে পারে। এজন্য তিনি তিতাসের জরুরি বিভাগে যোগাযোগ করার পরামর্শ দেন তিনি।

বিডি২৪লাইভ/এআইআর

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: