প্রচ্ছদ / জাতীয় / বিস্তারিত

সম্পাদনা: মো: হৃদয় আলম

ডেস্ক এডিটর

চকবাজার এলাকায় অগ্নিকাণ্ড

যে তিন কারণে লাগতে পারে আগুন

২২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ২২:৫৪:০০

ছবি: ইন্টারনেট থেকে

একুশে ফেব্রুয়ারিতে এক মৃত্যুপুরীতে পরিণত হয়েছিলো চুড়িহাট্টা। যেখানকার দৃশ্য প্রথম দেখায় মনে হবে যুদ্ধবিধ্বস্ত কোন পরিত্যক্ত এলাকা! সবশেষ দুইদিন পরেও ভবনগুলো দেখে আঁতকে উঠবেন যে কেউ।

ভবনগুলো এখন আগুনে পুড়ে শুধু ভাঙা-চূড়া অবকাঠামো নিয়ে দাঁড়িয়ে আছে। সিটি করপোরেশনের পরিচ্ছন্নতাকর্মীরা রাস্তা ও আশপাশের এলাকা পরিষ্কারের কাজ করছেন। সিটি করপোরেশনের ট্রাকে পানি এনে রাস্তা ও আশপাশ পরিষ্কার করা হচ্ছে।

চুড়িহাট্টার যে ভবনগুলোতে আগুন লেগেছে তার মাঝে একটি গোল চত্বরের একপাশে জড়ো করে রাখা হয়েছে আগুনে পুড়ে যাওয়া গাড়ি, মোটরসাইকেলসহ বিভিন্ন যানবাহনের অবকাঠামো।

এ ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের পেছনে সম্ভাব্য তিনটি কারণ থাকতে পারে বলে ধারণা করছেন বিস্ফোরক পরিদপ্তরের প্রধান পরিদর্শক শামসুল আলম।

তিনি বলেন, আমরা ঘটনাস্থল থেকে অনেক ক্লু পেয়েছি। ধারণা করা হচ্ছে, তিনটি কারণে আগুন লাগতে পারে। এগুলো হচ্ছে- ট্রান্সফরমার বিস্ফোরণ, গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণ ও কেমিক্যাল বিস্ফোরণ।

শুক্রবার (২২ ফেব্রুয়ারি) সকালে ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে তিনি সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন।

শামসুল আলম বলেন, আমরা পুড়ে যাওয়া কয়েকটি গাড়ি চেক করেছি। অনেকেই দুর্ঘটনাস্থলে থাকা যেই পিকআপটির সিলিন্ডার বিস্ফোরণে আগুনের সূত্রপাতের কথা বলেছিল; কিন্তু সেই পিকআপের সিলিন্ডারটি অক্ষত অবস্থায় আছে।

তিনি আরও বলেন, ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে দেখা গেছে, এ এলাকায় বেশ কিছু কেমিক্যালের দোকান রয়েছে। এ ছাড়া ওয়াহিদ ম্যানশনের নিচে বেশকিছু প্লাস্টিকের দোকান ছিল। এ কারণে আগুন দ্রুত ছড়িয়ে পড়েছে।

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের তদন্ত কমিটির সদস্য বুয়েটের পুরকৌশল বিভাগের অধ্যাপক মেহেদী আহমেদ আনসারী ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে বলেন, ওয়াহেদ ম্যানশনের নিচতলা ও দ্বিতীয় তলার বিম ও কলাম ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ভবনের সাপোর্ট ধরে রাখতে পারবে কি না, তা নিশ্চিত হওয়ার জন্য আরও কিছু পরীক্ষা-নিরীক্ষা প্রয়োজন।

এরই মধ্যে পুরান ঢাকার চকবাজার এলাকায় অগ্নিকাণ্ডে সরকারি সংস্থার কোনো অবহেলা আছে কি না, তা খতিয়ে দেখা হবে বলে জানিয়েছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের তদন্ত কমিটি। শুক্রবার বেলা ১১টার দিকে ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে কমিটি এ কথা জানায়।

অগ্নিকাণ্ডের উৎস খুঁজে বের করা ও ভবিষ্যতে যাতে এ ধরনের ঘটনা না ঘটে সে জন্য কর্মপন্থা নির্ধারণ করে সরকারকে সুপারিশ দেওয়ার জন্য এই পাঁচ সদস্যের কমিটি গঠন করেছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

উল্লেখ্য, রাজধানীর চকবাজার এলাকার নন্দকুমার দত্ত সড়কের চুড়িহাট্টা শাহী মসজিদের পেছনের একটি ভবনে বুধবার রাত ১০টা ১০ মিনিটে আগুন লাগে। এ ঘটনায় অন্তত ৭০ জন নিহত হন। আহত হয়েছেন অন্তত ৪১ জন।

বিডি২৪লাইভ/এইচকে

বিডি টুয়েন্টিফোর লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: