সম্পাদনা: আমিনুল ইসলাম রোমান

ডেস্ক এডিটর

চকবাজারের পর এবার জুরাইনে আগুন

২২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ২৩:২৬:১৪

ছবি: ইন্টারনেট

পুরান ঢাকার আরেকটি ভয়াবহ ট্রাজেডির সাক্ষী হলো বিশ্ববাসী। আগুনের লেলিহান শিখা কেড়ে নিয়েছে অন্তত ৮১টি তাজা প্রাণ। দগ্ধ হয়েছেন আরো অর্ধশত মানুষ। খাবারের হোটেল, বাসাবাড়ির মানুষের পাশাপাশি পুড়ে মরেছে রাস্তার মানুষও। এই ট্রাজেডি কাঁদছে গোটা দেশের মানুষ।

পুরান ঢাকার ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের রেশ রেশ কাটতে না–কাটতেই এবার রাজধানীর জুরাইনের আইজি গেট এলাকায় গ্যাস পাইপলাইনের লিকেজ থেকে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে।

আজ শুক্রবার (২২ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যা সাতটার দিকে ম্যানহোলের ভেতরে থাকা লাইনের লিকেজ থেকে বের হতে থাকা গ্যাসে আগুন লেগে যায়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ম্যানহোলের ভেতরে গ্যাসের লাইনে লিকেজ আছে। আগে থেকেই ওই জায়গা দিয়ে গরম বাতাস বের হতো। গ্যাসের গন্ধও পাওয়া যেতো। সন্ধ্যায় ওখানে হঠাৎ করে আগুন লেগে যায়। এক পর্যায়ে বিকট শব্দে আগুন এক তলা পর্যন্ত উঁচু হয়ে যায়।

অন্তু নামে স্থানীয় এক বাসিন্দা বলেন, ‘আগুন লাগার পর স্থানীয়রা মিলে বালি দিয়ে গ্যাস বের হওয়ার জায়গা বন্ধ করে দেই। তবে ওই জায়গা দিয়ে গ্যাস বন্ধ হলেও ম্যানহোলের বিভিন্ন জায়গা দিয়ে এখনো গ্যাস বের হচ্ছে।’

গ্যাস বের হওয়ার কারণে আতঙ্কিত হয়ে অনেকেই বাসা এলাকা ছেড়ে আশপাশে আত্মীয়র বাড়িতে চলে গেছেন বলেও জানান অন্তু।

ফায়ার সার্ভিসের পোস্তগোলা স্টেশন থেকে দেলোয়ার হোসেন নামে একজন ফায়াসার্ভিসকর্মী টেলিফোনে জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়েছিলেন তারা। স্থানীয়রা তাৎক্ষণিকভাবেই আগুন নিভিয়ে ফেলেন। পরে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা স্টেশনে ফিরে আসেন।

লাইনের লিকেজ থেকে গ্যাস বের হওয়া অব্যাহত থাকায় বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, এটা তো গ্যাস কোম্পানির বিষয়। পুরাতন লাইনে বিভিন্ন জায়গায় বিভিন্ন সময় লিকেজ হয়। এটাও তেমনই ঘটনা।

এর আগে বুধবার (২০ ফেব্রুয়ারি) রাত ১০টার পর রাজধানীর চকবাজার এলাকার নন্দকুমার দত্ত সড়কের চুরিহাট্টা মসজিদ গলির রাজ্জাক ভবনে আগুন লাগে। রাত ১টা ৫ মিনিটে আগুন নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যায়। পরে আগুন ভয়াবহ আকারে আশপাশের আরও ৫টি বিল্ডিংয়ে ছড়িয়ে পড়ে। ফায়ার সার্ভিসের ৩২টি ইউনিট রাত ৩টার দিকে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয়।

বিডি২৪লাইভ/এআইআর

বিডি টুয়েন্টিফোর লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: