প্রচ্ছদ / জাতীয় / বিস্তারিত

ডিএনসিসি ও ডিএসসিসি নির্বাচন

ঢাকার দুই সিটির ভোট গ্রহণ চলছে

২৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ , ১০:০১:২০

ছবি: ইন্টারনেট থেকে

ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটিতে বৃহস্পতিবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) ভোট গ্রহণ চলছে। সকাল ৮টা থেকে একটানা চলবে বিকাল ৪টা পর্যন্ত। বৃষ্টির সকালে রাজধানীর দুই সিটিতে সাধারণ ভোটারদের আনাগোনা নেই বললেই চলে। দলীয় প্রতীকে প্রার্থী হওয়ার সুযোগ থাকলেও এ নির্বাচনে অধিকাংশ নিবন্ধিত রাজনৈতিক দল প্রার্থী না দেওয়ায় নির্বাচনী প্রচারে কোনো উত্তাপ ছিল না। তবে নির্বাচন উপলক্ষে আজ দুই সিটির পুরো অংশেই সাধারণ ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে। নির্বাচনে এলাকায় সব ধরনের যন্ত্রচালিত বাহন চলাচলে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে।

অন্যদিকে, গত দুদিন ধরেই ভোটের তুলনায় ছুটি ও যানবাহন চলাচলে নিষেধাজ্ঞার বিষয়টি নিয়েই সাধারণ মানুষের মধ্যে প্রায় সর্বত্র আলোচনা চলছে। কারও কারও মতে ‘প্রতিদ্বন্দ্বিতাবিহীন’এ নির্বাচনে ভোটারদের কেন্দ্রে যাওয়ার আগ্রহ কম। গত দু’দিনের মতোই আজও রাজধানীতে বৃষ্টির কারণে ভোটার উপস্থিতির সংখ্যা কম। এমন পরিস্থিতিতে দুই সিটির পুরো অংশে যান চলাচল বন্ধ করে দেওয়ায় সাধারণ মানুষ দুর্ভোগের শিকার হচ্ছে। ইতোমধ্যে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি) ও ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন (ডিএসসিসি) নির্বাচন উপলক্ষে সকল ধরনের যান চলাচল বন্ধের নির্দেশনা দিয়েছে নির্বাচন কমিশন।

তবে প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কেএম নূরুল হুদা জানিয়েছেন, প্রধান প্রধান সড়কে বাস চলাচলের ওপর কোনো নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়নি। পরীক্ষার্থীরা প্রবেশপত্র দেখিয়ে প্রাইভেট কার ব্যবহার করতে পারলেও অহেতুক ঘোরাফেরার জন্য এ যান ব্যবহার করা যাবে না।

বুধবার বিকালে ইসির মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত এক প্রেস ব্রিফিংয়ে সিইসি বলেন, ঢাকা শহরে অনেক এমার্জেন্সি বিষয় আছে। এয়ারপোর্টে একজন যাত্রী যাবে, তারজন্য কি বন্ধ থাকবে, অ্যাম্বুলেন্স যাবে, এক্সপোর্ট-ইমপোর্টের জিনিসগুলো যাবে, এরকম জিনিসগুলো বিবেচনা করে পুলিশকে নির্দেশনা দেওয়া আছে, যাতে এভাবে নিয়ন্ত্রিত হয়। ব্যাপকভাবে সব বন্ধ করে দেওয়া হয়নি।

ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনে সাধারণ ওয়ার্ড ৫৪টি ও সংরক্ষিত ওয়ার্ড ১৮টি। এ সিটিতে ভোট কেন্দ্র এক হাজার ২৯৫টি ও ভোটকক্ষ ছয় হাজার ৪৮২টি। ভোটার সংখ্যা ৩০ লাখ ৩৫ হাজার ৬২১ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ১৫ লাখ ৬৩ হাজার ৫৩০ জন ও নারী ১৪ লাখ ৭২ হাজার ৯১ জন। উত্তরে নতুন করে যুক্ত হওয়া ১৮টি ওয়ার্ডে ভোটার ৫ লাখ ৯০ হাজার ৭০৫ জন।

অপরদিকে ঢাকা দক্ষিণ সিটিতে সাধারণ ওয়ার্ডে ১৮টি ও সংরক্ষিত ওয়ার্ড ছয়টি। এসব ওয়ার্ডে ভোটার চার লাখ ৯৬ হাজার ৭৩৫ জন; পুরুষ ২ লাখ ৫৪ হাজার ৪৯৭ জন ও নারী দুই লাখ ৪২ হাজার ২৩৮ জন। ভোট কেন্দ্র ২৩৫টি ও ভোটকক্ষ এক হাজার ২৫২।

বুধবার বিকালে ইসির মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত এক প্রেস ব্রিফিংয়ে সিইসি বলেন, ঢাকা শহরে অনেক এমার্জেন্সি বিষয় আছে। এয়ারপোর্টে একজন যাত্রী যাবে, তারজন্য কি বন্ধ থাকবে, অ্যাম্বুলেন্স যাবে, এক্সপোর্ট-ইমপোর্টের জিনিসগুলো যাবে, এরকম জিনিসগুলো বিবেচনা করে পুলিশকে নির্দেশনা দেওয়া আছে, যাতে এভাবে নিয়ন্ত্রিত হয়। ব্যাপকভাবে সব বন্ধ করে দেওয়া হয়নি।

বিডি২৪লাইভ/এএস

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: