প্রচ্ছদ / জাতীয় / বিস্তারিত

ডিএনসিসি ও ডিএসসিসি নির্বাচন

ভোট দিয়ে যা বললেন সিইসি

২৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ , ১১:৫১:০০

ছবি : প্রতিনিধি

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি) ও ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন (ডিএসসিসি) নির্বাচনের ভোটগ্রহণ আজ বৃহস্পতিবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) সকাল ৮টা থেকে শুরু হয়েছে। যা বিরতিহীনভাবে চলবে বিকেল ৪টা পর্যন্ত।

প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কেএম নুরুল হুদা বলেছেন, ডিএনসিসি ও ডিএসসিসি ভোটে বৈরী আবহাওয়া আর সব রাজনৈতিক দলের অংশগ্রহণ না থাকায় ভোটারদের উপস্থিত কম।

সিইসি বলেন, ভোট কেন্দ্রে ভোটারদের কম উপস্থিতির দায় নির্বাচন কমিশনের নয়, রাজনৈতিক দলের। তবে বেলা বাড়ার সাথে সাথে আশা করি ভোট কেন্দ্রে ভোটারদের উপস্থিতি বাড়বে।

বৃহস্পতিবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) সকালের দিকে রাজধানীর উত্তরা ৫ নাম্বার সেক্টরে আইইএস উচ্চ বিদ্যালয়ের ভোটকেন্দ্রে ভোট দিয়ে সংবাদিকদের সঙ্গে এ কথা বলেন তিনি।

ভোটার উপস্থিতি কম থাকার দুটি কারণ উল্লেখ করে নূরুল হুদা আরও বলেন, ‘স্বল্প সময়ে বা এক বছরের জন্য মেয়র ও কাউন্সিলরদের নির্বাচন করা হবে। এ কারণে ভোটারদের আগ্রহ কম হতে পারে। আবার সব রাজনৈতিক দলের অংশগ্রহণ ও প্রার্থীদের প্রতিদ্বন্দ্বিতা না থাকায় ভোটার উপস্থিতি কম হতে পারে।’

নির্বাচনের পরিবেশ সুষ্ঠু কিনা, এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘কমিশনের পক্ষ থেকে নির্বাচনকে সুষ্ঠু করতে সব ধরনের ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। তাই সুষ্ঠু না হওয়ার কোনও কারণ নেই।’

এর আগে, সকালে ভোট দেওয়ার জন্য নির্বাচন কমিশন থেকে! বের হওয়ার সময় সিটি নির্বাচনের পরিবেশ শান্তিপূর্ণ বলে মন্তব্য করেছিলেন সিইসি।

প্রসঙ্গত, ডিএনসিসির মেয়র পদে পাঁচজন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। প্রার্থীরা হলেন- বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের আতিকুল ইসলাম, জাতীয় পার্টির (জাপা) মো. শাফিন আহমেদ, ন্যাশনাল পিপলস পার্টির মো. আনিসুর রহমান দেওয়ান, প্রগতিশীল গণতান্ত্রিক পার্টির শাহীন খান ও স্বতন্ত্র মো. আব্দুর রহিম।

ডিএনসিসির ১৮টি সাধারণ ওয়ার্ডের ১১৬ জন ও সংরক্ষিত ওয়ার্ডে ৪৫জন প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী রয়েছে। ডিএসসিসির ১৮টি সাধারণ ওয়ার্ডে প্রার্থী রয়েছে ১২৫ জন ও সংরক্ষিত ওয়ার্ডে রয়েছে ৪৫ জন।

জানা গেছে, ডিএনসিসির মেয়র পদে উপ-নির্বাচন, নতুন ১৮টি ওয়ার্ডের সাধারণ নির্বাচন, দুইটি ওয়ার্ডে উপ-নির্বাচন এবং ডিএসসিসি’র নতুন ১৮টি ওয়ার্ডের সাধারণ নির্বাচন হচ্ছে আজ। নির্বাচনে বিজয়ী প্রার্থীদের মেয়াদ হবে এক বছর। ২০২০ সালের মে মাসের দিকে এই দুই সিটির সব পদে সাধারণ নির্বাচন হওয়ার কথা।

বিডি২৪লাইভ/এএইচ/টিএএফ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: