মিয়ানমার-বাংলাদেশ সাইবার যুদ্ধ শুরু!

১৯ মার্চ ২০১৯ , ০৯:১৩:০০

ছবি: সংগৃহীত

হঠাৎ করেই কোনো ঘোষণা ছাড়া মিয়ানমার-বাংলাদেশে সাইবার যুদ্ধ শুরু হয়েছে। গত ১৫ মার্চ থেকে মিয়ানমারের হ্যাকাররা বাংলাদেশের সরকারি-বেসরকারি অন্তত ৫৫টি ওয়েবসাইট হ্যাক করে তাদের পতাকা ঝুলিয়ে দিয়েছে।

এদিকে তাদের হামলার প্রতিবাদে মঙ্গলবার বাংলাদেশের সাইবার৭১, ডন্স টিম-ডিটিসহ অন্যান্য বাংলাদেশি হ্যাকার কমিউনিটি সম্মিলিতভাবে ‘OP Myanmar’-এর মাধ্যমে মিয়ানমার সাইবার স্পেসে পাল্টা আক্রমণ শুরু করেছে।মঙ্গলবার সন্ধ্যায় এ প্রতিবেদন লেখার সময় মিয়ানমারের আইন, বাণিজ্য, জনসংযোগ মন্ত্রণালয়সহ ব্যাংকের বহু সাইট বাংলাদেশের হ্যাকাররা ডাউন করে দিয়েছে। এ হামলায় যারা বাংলাদেশ থেকে অংশ নিয়েছেন ভার্চুয়াল জগতে তাদের নাম হ্যাক্সর আহমেদ, ডন, সিরিও, দ্য বস।

মঙ্গলবার (১৯ মার্চ) সন্ধ্যায় ‘সাইবার ৭১ -We Hack to Protect Bangladesh’ নামে ফেসবুক পেজে ‌‘ইয়াবাখোরদের সাথে খেলা শুরু...’ শিরোনামে একটি পোষ্ট করা হয়। যেখানে বলা হয়, মিয়ানমারের কিছু তথাকথিত হ্যাকাররা বাংলাদেশের সাইবার স্পেসে কোন কারন ছাড়াই আক্রমণ করে, যার জবাব হিসেবে ‘সাইবার ৭১’ এবং বাংলাদেশের হ্যাকার কমিউনিটির সম্মিলিত Op Myanmar এর মাধ্যমে মায়ানমার সাইবার স্পেসের গুরুত্বপূর্ণ ওয়েবসাইটে আক্রমণ করা হলো।

মিয়ানমার সাইবার স্পেসে পাল্টা হামলাকারী বাংলাদেশ হ্যাকার এইচআর সোহাগ গণমাধ্যমকে বলেন, মিয়ানমার হ্যাকাররা আমাদের দেশের বিভিন্ন দুর্বল সাইটগুলোতে আক্রমণ করেছে। তাই আমরা এটার ফলপ্রসূ জবাব দিতে মিয়ানমারের সরকারি-বেসরকারি ও জনপ্রিয় সকল ফেসবুক গ্রুপ, ফেসবুক পেজ ও ফেসবুক অ্যাকাউন্টে আক্রমণ চালিয়েছি। যার ফলাফল অনেকটাই বড় হবে। আমাদের কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে। আমরা আরও সাইট ও সোশ্যাল মিডিয়া, তাদের ফেসবুক গ্রুপ, ফেসবুক অ্যাকাউন্ট হ্যাক ডিজেবল করে এর একটা বড় জবাব দেব।

তিনি আরও বলেন, আমাদের কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে। আমরা আরও সাইট ও সোশ্যাল মিডিয়া, তাদের ফেসবুক গ্রুপ, ফেসবুক অ্যাকাউন্ট হ্যাক ও ডিজেবল করে এর একটা বড় জবাব দেব।

বিডি২৪লাইভ/এইচকে

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: