আবরার নিহত

রাজধানীর ফার্মগেটে রাস্তা বন্ধ করে অবস্থান নিয়েছে শিক্ষার্থীরা

২০ মার্চ, ২০১৯ ১০:৫৪:৩২

ছবি: ইন্টারনেট

রাজধানীর প্রগতি সরণিতে বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অফ প্রফেশনালসের (বিইউপি) শিক্ষার্থী আবরার আহমেদ চৌধুরী নিহত হওয়ার ঘটনায় বুধবার সকাল সকাল থেকে রাজপথে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ চলছে। তারা নিরাপদ সড়কের দাবিতে অবরোধ এবং গাড়িচাপায় শিক্ষার্থী হত্যার বিচার দাবি করেন। শিক্ষার্থীদের সড়ক অবরোধের কারণে নগরীর বিভিন্ন রাস্তায় গাড়ির সংখ্যা কম থাকায় যাত্রীদের চরম ভোগান্তিত পড়তে হয়েছে।

বুধবার (২০ মার্চ) সকাল ১০টায় ফার্মগে সংলগ্ন সড়ক অবরোধ করে বিজ্ঞান কলেজের শিক্ষার্থীরা।

এদিকে সকালে অফিসে যাওয়ার জন্য বেরিয়েও গণপরিবহন কম থাকায় রাস্তায় দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা গেছে সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠান এবং ব্যাংক-বীমায় কর্মরত হাজার হাজার মানুষকে। দুয়েকটি বাস চললেও অতিরিক্ত ভিড়ের কারণে সেগুলোতে উঠতে পারছেন না।

তেজগাঁও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাজহারুল ইসলাম বলেন, ‘শিক্ষার্থীরা শান্তিপূর্ণ কর্মসূচি পালন করছে। যাতে কোনও অপ্রীতিকর ঘটনা না ঘটে সেদিকে পুলিশ খেয়াল রাখবে।’

প্রসঙ্গত, মঙ্গলবার (১৯ মার্চ) সকালে রাজধানীর কুড়িলের যমুনা ফিউচার পার্কের সামনে নিজ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বাসে ওঠার সময় পেছন থেকে সুপ্রভাত পরিবহনের একটি বাস বিইউপি শিক্ষার্থী আবরার আহমেদ চৌধুরীকে চাপা দিলে ঘটনাস্থলেই তিনি নিহত হন। এ দুর্ঘটনার পর থেকেই নিরাপদ সড়কের দাবিতে শিক্ষার্থীরা আন্দোলনে নামে। তারা মঙ্গলবার বিকাল পর্যন্ত রাস্তা অবরোধ করে আন্দোলন করে। সেখান থেকেই বুধবারের কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়।

আট দফা দাবির মধ্যে অন্যতম হচ্ছে, চালকের সর্বোচ্চ শাস্তি–এ কথা উল্লেখ করে মায়েশা নূর বলেন, ‘আমরা সর্বোচ্চ শাস্তি বলতে বাসচালকের ফাঁসি চেয়েছি।’ তিনি বলেন, ‘গতবার শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের মুখে জাবালে নূরের রোড পারমিট বাতিল করা হয়েছিল বলে আমাদের জানানো হয়েছিল। কিন্তু জাবালে নূর এখনও রাস্তায় চলছে। আমরা জাবালে নূর ও সুপ্রভাত বাস রাস্তায় দেখতে চাই না।'

বিডি২৪লাইভ/এসএএস

বিডি টুয়েন্টিফোর লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: