প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

বিচারপতির স্ত্রীর কাছে ঘুষ চাওয়া এএসআইয়ের কারাদণ্ড

২১ মার্চ ২০১৯ , ০৬:২০:৪১

ছবি: প্রতীকী

হাইকোর্টের একজন বিচারপতির স্ত্রীর কাছে তাদের দুই সন্তানের পাসপোর্ট ভেরিফিকেশনের জন্য ঘুষ দাবি করায় এক পুলিশ কর্মকর্তাকে দুই বছর কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

আজ বৃহস্পতিবার (২১ মার্চ) ঢাকার ৯ নম্বর বিশেষ জজ আদালতের বিচারক শেখ হাফিজুর রহমান বৃহস্পতিবার আসামির উপস্থিতিতে এ আদেশ দেন।

বিচারক আসামিকে দণ্ডবিধির ৪১৯ ধারায় এক বছরের বিনাশ্রম কারাদণ্ড এবং দুদক আইনের ৫ (২) ধারায় আরও এক বছরের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেন।

দণ্ডপ্রাপ্ত ওই এসআইয়ের নাম- মো. সাদেকুল ইসলাম। তিনি ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গি থানার চড়োল গ্রামের মোহাম্মদ আলীর ছেলে। তিনি পুলিশের বিশেষ শাখায় কর্মরত ছিলেন। বৃহস্পতিবার রায় ঘোষণার পর সাজা পরোয়ানা ইস্যু করে বিচারক তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

মামলার অভিযোগ থেকে জানা যায়, ২০১৬ সালের ২৩ আগস্ট হাইকোর্ট বিভাগের বিচারপতি আবু তাহের মোহাম্মদ সাইফুর রহমানের দুই সন্তানের পাসপোর্ট ভেরিফিকেশনের জন্য তার বাসায় যান ওই পুলিশ কর্মকর্তা। তবে আসল নাম ও পদবি গোপন করে নিজেকে পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) আবদুস সালাম বলে পরিচয় দেন। সেদিন বিচারপতির স্ত্রী ডা. সাবরিনা মোনাজিলিনের কাছে তার দুই সন্তানের পাসপোর্ট ভেরিফিকেশনের জন্য ২ হাজার টাকা ঘুষ দাবি করেন তিনি। বিচারপতির স্ত্রী তখন যাতায়াত খরচ বাবদ তাকে ৫০০ টাকা বকশিশ দিতে চাইলে ওই কর্মকর্তা বলেন, ২ হাজার টাকা না দিলে হবে না।

পরে এ ঘটনায় একই বছরের ৩১ আগস্ট সুপ্রিম কোর্টের পক্ষ থেকে রাজধানীর শাহবাগ থানায় একটি মামলা করা হয়। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা দুদকের উপ-পরিচালক রাহিলা খাতুন ২০১৭ সালের ৪ মে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। মামলা চলাকালে বিভিন্ন সময়ে চারজন সাক্ষীর জবানবন্দি গ্রহণ করেন আদালত।

বিডি২৪লাইভ/এআইআর

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: