প্রচ্ছদ / জাতীয় / বিস্তারিত

আরমান হোসেন

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট

উপজেলা ভোট

২৩-২৫ মার্চ রোহিঙ্গাদের ক্যাম্পের বাইরে যাওয়া নিষিদ্ধ

২১ মার্চ, ২০১৯ ২৩:৫২:৪১

ফাইল ফটো

তৃতীয় ধাপের উপজেলা ভোটকে সামনে রেখে রোহিঙ্গাদের ক্যাম্পের চৌহদ্দির বাইরে যেতে ২৩-২৫ মার্চ নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে নির্বাচন কমিশন।

এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগকে চিঠি দিয়েছে ইসির উপ সচিব মো. আতিয়ার রহমান।

তৃতীয় ধাপে রবিবার (২৪ মার্চ) যে শতাধিক উপজেলায় ভোট হওয়ার কথা রয়েছে তার মধ্যে কক্সবাজারের পেকুয়া, কুতুবদিয়া, মহেশখালী, রামু, উখিয়া এবং টেকনাফও রয়েছে।

ইসির এ নির্দেশনা শরণার্থী, ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশনারসহ সংশ্লিষ্ট সবার কাছে পৌঁছেছে বলে জানান কক্সবাজার জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. বশির আহমেদ।

এ কর্মকর্তা জানান, কোনো রোহিঙ্গা শরণার্থী যেন ২৩ মার্চ সন্ধ্যা ৭টা থেকে ২৫ মার্চ সকাল ৮টা পর্যন্ত ক্যাম্পের চৌহদ্দি থেকে বের হতে না পারবে না। ওই সময় তারা অন্য কোথাও যেতে পারবেন না।

এনজিও বা স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের কর্মীদেরও গাড়ি নিয়ে ওই সময় রোহিঙ্গা ক্যাম্পে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছে। তবে খাদ্য, ত্রাণ ও জরুরি স্বাস্থ্য সেবা এ নিষেধাজ্ঞার বাইরে থাকবে।

ইসির চিঠিতে বলা হয়েছে, বাংলাদেশে অবস্থানরত রোহিঙ্গা শরণার্থীদেরকে যেন নির্বাচনে কোনো প্রার্থীর পক্ষে বা বিপক্ষে ব্যবহার করতে না পারে বা তারা যাতে কোনো বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করতে না পারে অথবা কোনো দুষ্কৃতকারী তাদেরকে ব্যবহার করতে না পারে সেজন্য বিশেষ দৃষ্টি রাখা প্রয়োজন।

জননিরাপত্তা বিভাগে পাঠানো চিঠির অনুলিপি পররাষ্ট্র সচিব, পুলিশের মহা পরিদর্শক, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ সচিব, চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার, কক্সবাজারের শরণার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশনারসহ সংশ্লিষ্ট দপ্তরেও পাঠানো হয়েছে।

২০১৭ সালের ২৫ অগাস্ট মিয়ানমারের রাখাইনে নতুন করে সেনা অভিযান শুরুর পর এ পর্যন্ত সাত লাখের বেশি রোহিঙ্গা পালিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে। তাদের অধিকাংশই আছে কক্সবাজারের কুতুপালং ক্যাম্পে। এর বাইরে গত কয়েক দশকে বাংলাদেশে আসা আরও প্রায় চার লাখ রোহিঙ্গার ভার বহন করে চলেছে বাংলাদেশ।
কক্সবাজার সদর ও নরসিংদী সদরের ভোট চতুর্থধাপে

ইসির যুগ্মসচিব (জনসংযোগ) এস এম আসাদুজ্জামান জানান, নরসিংদী ও কক্সবাজার সদর উপজেলার ভোট ২৪ মার্চের পরিবর্তে ৩১ মার্চ করার সিদ্ধান্ত হয়েছে।

এসব উপজেলায় ইভিএমে ভোট করার কথা রয়েছে।

তৃতীয় ধাপে ১২৭ উপজেলার ভোট হওয়ার কথা থাকলেও বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতা ও আদালতের স্থগিতাদেশের কারণে এ সংখ্যা চূড়ান্তভাবে আরও কমে আসবে।

বিডি২৪লাইভ/এএইচ/এআইআর

বিডি টুয়েন্টিফোর লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: