এস হোসেন আকাশ

কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি

রাতে ভোট

কটিয়াদীতে সব কেন্দ্রের ভোটগ্রহণ স্থগিত, ২ পুলিশ কর্মকর্তা প্রত্যাহার

২৪ মার্চ, ২০১৯ ১২:০২:০৬

ছবি: প্রতিনিধি

কিশোরগঞ্জ জেলার কটিয়াদী উপজেলার বিভিন্ন কেন্দ্রে রাতে ব্যালট পেপারে সীল দেওয়ায় উপজেলার ৮৯টি কেন্দ্রের সবকটিতে ভোটগ্রহণ স্থগিত করেছেন রিটার্নিং অফিসার। রোববার (২৪ মার্চ) সকাল ৮টায় ভোটগ্রহণ শুরু হওয়ার পর বিভিন্ন কেন্দ্র থেকে আগেই ভোট দেয়ার খবর আসতে থাকার প্রেক্ষিতে সকাল পৌনে ১০টার দিকে উপজেলার ৮৯টি কেন্দ্রের সবকটিতে ভোটগ্রহণ স্থগিত ঘোষণা করেন রিটার্নিং অফিসার ও জেলা নির্বাচন অফিসার মোহাম্মদ তাজুল ইসলাম।

রিটার্নিং অফিসার ও জেলা নির্বাচন অফিসার মোহাম্মদ তাজুল ইসলাম জানান, রাতেই কিছু দুস্কৃতিকারী ভয়ভীতি দেখিয়ে ব্যালট পেপারে সীল দিয়ে রেখে দিয়েছে। এ পরিস্থিতিতে উপজেলার ৮৯টি কেন্দ্রের সবকটিতে ভোটগ্রহণ স্থগিত করা হয়েছে।

জানা গেছে, সকাল ৮টায় কটিয়াদী উপজেলার ৮৬টি কেন্দ্রে একযোগে ভোটগ্রহণ শুরু হয়। এরই মধ্যে চান্দপুর ইউনিয়নের বেশ কিছু কেন্দ্রে রাতেই ব্যালট পেপারে সিল মারার অভিযোগ ওঠে। নির্বাচন কমিশনকে বিষয়টি জানানোর পর পথমে ৫টি কেন্দ্রের ভোটগ্রহণ স্থগিতের নির্দেশ দেন নির্বাচন কমিশন। একইসঙ্গে অতিরিক্ত পুলিশ ও ওসিকে প্রত্যাহারের নির্দেশ দেয়া হয়। পরে সকাল ১০টার দিকে সব কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ স্থগিত করা হয়।

এদিকে পুলিশ সুপার মাশরুকুর রহমান খালেদ বিপিএম (বার) ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেছেন, ‘ভোট কেন্দ্রে অনিয়মের অভিযোগে কিশোরগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো: শফিকুল ইসলাম ও থানার ওসি মোহাম্মদ সামসুদ্দিনকে প্রত্যাহার করা হয়েছে।’

কটিয়াদী উপজেলায় মোট ভোটার ২ লাখ ৩০ হাজার ৪২২ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ১ লাখ ১৩ হাজার ৬১৮ জন এবং মহিলা ভোটার ১ লাখ ১৬ হাজার ৮২২ জন।

নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ৬ জন, ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৬ জন এবং মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৩ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতায় ছিলেন।

চেয়ারম্যান পদের প্রার্থীরা হলেন, আওয়ামী লীগ প্রার্থী কেন্দ্রীয় যুব মহিলা লীগের সহ তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক তানিয়া সুলতানা হ্যাপী (নৌকা), জাকের পার্টির প্রার্থী শহীদুজ্জামান স্বপন (গোলাপ ফুল), আওয়ামী লীগের তিন বিদ্রোহী সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান লায়ন মো. আলী আকবর (দোয়াত-কলম), আওয়ামী লীগ নেতা মো. আলতাফ উদ্দীন (মোটর সাইকেল) ও ডা. মোহাম্মদ মুশতাকুর রহমান (ঘোড়া) এবং স্বতন্ত্র প্রার্থী মো. আনোয়ার আনার (আনারস)।

কটিয়াদী উপজেলায় ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৬ প্রার্থী হলেন, রেজাউল করিম শিকদার (তালা), মো. বকুল মিঞা (টিউবওয়েল), সদরুল হক (বৈদ্যুতিক বাল্ব), মজিবুর রহমান (টিয়া পাখি), মো. কামরুজ্জামান (মাইক) এবং মো. আবুল কালাম (উড়োজাহাজ)।

কটিয়াদী উপজেলায় মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৩ প্রার্থী হলেন, সাথী বেগম (কলস), রোকসানা (ফুটবল) এবং মোসা. নওরীন সুলতানা (হাঁস)।

বিডি২৪লাইভ/এমআর

বিডি টুয়েন্টিফোর লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: