প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

মোবাইলে প্রেম, থানায় বিয়ে!

২৫ মার্চ ২০১৯ , ০৬:০৭:৪১

ছবি: সংগৃহীত

প্রথমে মোবাইলের মাধ্যমে পরিচয়। তারপর প্রণয়। দীর্ঘ দুই বছর ধরে যোগাযোগ অব্যাহত থাকার সূত্র ধরে দীর্ঘদিনের সেই প্রণয়কে পরিণয়ে রূপ দিতে ছোট বোনকে নিয়ে প্রেমিকের বাড়িতে এসে ওঠেন প্রেমিকা। এমনই ঘটনা ঘটেছে বগুড়ার শেরপুরে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, শেরপুর উপজেলার কুসুম্বী ইউনিয়নের বাগড়া পশ্চিমপাড়া গ্রামের ফজর আলীর ছেলে সুমনের (২৩) সঙ্গে বিক্রমপুরের মতিন সেখের মেয়ে মাহির (২১) মোবাইল ফোনের মাধ্যমে পরিচয় হয়। একপর্যায়ে তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। দীর্ঘ দুই বছর ধরে যোগাযোগ অব্যাহত থাকার সূত্র ধরে গত শুক্রবার (২২মার্চ) মাহি সেখ তার এক ফুফাতো বোনকে নিয়ে বাড়ি থেকে পালিয়ে শেরপুর উপজেলার বাগড়া পশ্চিমপাড়া গ্রামের সুমন সেখের বাড়িতে এসে ওঠেন।

বিডি২৪লাইভকে ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বগুড়ার শেরপুর থানার ওসি মো. হুমায়ুন কবীর জানান, মোবাইলের মাধ্যমে পরিচয় হয় তাদের। এরপর তারা মুখে কালিমা পড়ে বিয়ে করে। কিছু দিন আগে বিক্রমপুরের মাহি তার ছোট বোনকে নিয়ে স্বামী সুমনের বাড়ি আসে। এরপরে স্থানীয়রা বিষয়টি নিয়ে আপত্তি তুলে।

তিনি আরও জানান, স্থানীয় লোকজন ঘটনাটি জানতে পেরে থানায় খবর দেন। পরে পুলিশ ঘটনাস্থল গিয়ে ওই প্রেমিক যুগলকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। একপর্যায়ে শনিবার (২৩ মার্চ) উভয় পরিবারের সম্মতিতে তিন লাখ টাকা দেনমোহরে কাজি ডেকে জনপ্রতিনিধি ও গণমাধ্যম কর্মীদের উপস্থিতিতে থানার সার্ভিস ডেলিভারি সেন্টার কক্ষে সুমন সেখ ও মাহি সেখের বিয়ে দেয়া হয়।

বিডি২৪লাইভ/এআইআর

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: