প্রথমবারের মত গণমাধ্যমে যা বললেন সেই ‘ডিম বালক’

২৬ মার্চ, ২০১৯ ১৮:০৮:০০

ছবি: ইন্টারনেট থেকে

সম্প্রতি ঘটে যাওয়া নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে দুই মসজিদে সন্ত্রাসী হামলার পর আপত্তিকর মন্তব্য করায় অস্ট্রেলীয় সিনেটর ফ্র্যাজার অ্যানিংয়ের মাথায় ডিম ভেঙে এখন সারা বিশ্বে পরিচিত ‘ডিম বালক’ নামে পরিচিত হয়েছে উইল কনোলি। তাকে ঘিরে চলছে অবাক করা সব কাণ্ড। এজন্য বিশ্বের বিভিন্ন মিউজিশিয়ান ও ব্যান্ড দল কনোলির পাশে দাঁড়িয়েছে। তাকে নৈতিক সমর্থন দেওয়ার পাশাপাশি ফ্রি-তে তাদের শো উপভোগ করার অফারও দিয়েছে।

ফ্রেজার অ্যানিং বলেছিলেন, ‘নিউজিল্যান্ডের মসজিদে হামলার ওই ঘটনার প্রকৃত কারণ হচ্ছে অভিবাসন কর্মসূচি, যা উগ্র মুসলিমদের নিউজিল্যান্ডে থাকার অনুমোদন দিচ্ছে।’এর পরই মাথায় ডিম ভাঙেন কনোলি।

এরপর ডিম বালককে বিয়ের প্রস্তাব দেন শত শত অস্ট্রেলিয়ান তরুণী। তারা ডিমবালকের প্রশংসায় পঞ্চমুখ। ডিম বালক এখন এতটাই জনপ্রিয় যে তার ছবি সম্বলিত টিশার্ট কিনে পড়েছেন তরুণ-তরুণীরা।

তবে, ব্যাপক আলোচিত হলেও কখনো গণমাধ্যমের মুখোমুখি হননি ডিম বালক। এবার তিনি চ্যানেল টেনকে এক সাক্ষাৎকার দেন। যেখানে কনোলি বলেন, এক ঘণ্টা ধরে ফ্রেজারের বক্তব্য শোনার পর আমি তাঁর মাথায় ডিম ভাঙার সিধান্ত নিই। তবে আমি যা করেছি তা ঠিক ছিল না, কিন্তু সেই ঘটনা মানুষকে ঐক্যবদ্ধ করেছে।

তিনি আরও বলেন, সিনেটর ফ্রেজার অ্যানিংয়ের বক্তব্যের প্রতিবাদ করায় আমার মা খুশি হয়েছেন কিন্তু তিনি প্রতিবাদের ধরন পছন্দ করেননি।

বিশ্বখ্যাত ডিম বালক সাক্ষাৎকারে আরও বলেন, ওই সিনেটর যে আমার দিকে এভাবে তেড়ে আসবেন তা আমার কল্পনায় ছিল না।

এছাড়া এই ঘটনা বিশ্বজুড়ে এত আলোড়ন সৃষ্টি করবে তা চিন্তা করিনি বলেন কনোলি।

প্রসঙ্গত, এ ঘটনার পর কনোলির পক্ষে আইনি লড়াই এবং আরও ডিম কেনার তহবিলে ইতিমধ্য জমা পড়েছে বাংলাদেশি মুদ্রায় ৬৭ লাখের বেশি টাকা। কলোনি ঘোষণা দিয়েছেন এসব অর্থ ক্রাইস্টচার্চে হামলায় নিহত মুসলিম পরিবারদের দান করা হবে।

অবশ্য শেষ পর্যন্ত কোনও অভিযোগ গঠন ছাড়াই কারামুক্তি পান উইল কনোলি।

বিডি২৪লাইভ/এইচকে

বিডি টুয়েন্টিফোর লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: