প্রচ্ছদ / রাজনীতি / বিস্তারিত

সুলতান মনসুরের পর মোকাব্বিরও শপথ নিচ্ছেন

৩১ মার্চ ২০১৯ , ০৯:০০:০০

ছবি: ইন্টারনেট থেকে

সুলতান মনসুরের পর এবার শপথ নেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে নির্বাচিত সংসদ সদস্য গণফোরাম নেতা মোকাব্বির খান। রোববার (৩১ মার্চ) বিকেলে তিনি সিলেটের বিশ্বনাথ উপজেলা সদরের কলেজ রোডের একটি জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ ঘোষণা দেন।

সিলেট-২ আসনে সূর্য প্রতীক নিয়ে নবনির্বাচিত সংসদ সদস্য ও গণফোরাম নেতা মোকাব্বির খান বলেন, আমি সংসদে গিয়ে প্রথমেই অসুস্থ বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির জন্য দাবি উপস্থাপন করবো। পাশাপাশি নিখোঁজ বিএনপি নেতা এম ইলিয়াস আলীর নিখোজের ব্যাপারেও একটি তদন্ত কমিটি ঘটনের দাবি রাখবো।

তিনি বলেন, আমার দল শেষ পর্যন্ত একটি সিদ্ধান্ত দিয়েছে যে বিশ্বনাথ ও ওসমানী নগরের জনগণ যারা আমাকে ভোট দিয়েছেন তারা যদি চায় তাহলে আপনি শপথ গ্রহণ করে প্রতিনিধিত্ব করতে পারবেন। তাই আমি জাতীয় সংসদে এই আসনের জনগণের কথা বলতে শপথ গ্রহণের সিদ্ধান্ত নিয়েছি।

বৃষ্টির জন্য বক্তব্য শেষ করতে না পারায় সংসদ সদস্য ও গণফোরাম নেতা মোকাব্বির খান শপথের ব্যাপারে উপস্থিত জনসাধারণের মতামত নিয়ে বক্তব্য সমাপ্তি করেন।

পরে মোবাইল ফোনে মোকাব্বির খান গণমাধ্যমকে জানান, জাতীয় সংসদের স্পিকার সময় দিলেই তিনি শপথ গ্রহণ করবেন। এতে কোনো প্রকার সন্দেহ নেই।

সভায় উপজেলা চেয়ারম্যান সুহেল আহমদ চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও উপজেলা বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক আবদুল আজিজের পরিচালনায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন বালাগঞ্জ উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ও জেলা বিএনপি নেতা আবদাল মিয়া, লামাকাজি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও বিশ্বনাথ উপজেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক কবির হোসেন ধলা মিয়া, দেওকলস ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা বিএনপির সহ-সভাপতি তাহিদ মিয়া, অলংকারি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা বিএনপির সহ-সভাপতি নাজমুল ইসলাম রুহেল, স্বেচ্ছাসেবক দল নেতা হিরণ মিয়া, শ্রমিকদল নেতা আনছার আলী ও কলেজ ছাত্রদলের সহ-সভাপতি আখতার হোসেন প্রমুখ।

প্রসঙ্গত, এর আগে ডাকসুর সাবেক ভিপি ও আওয়ামী লীগের সাবেক কেন্দ্রীয় নেতা মনসুর শপথ নিয়ে ব্যাপক সমালোচনার শিকার হন। গণফোরাম সুলতান মনসুরকে দল থেকে বহিষ্কার করে।

বিডি২৪লাইভ/এইচকে

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: