ব্রুনাইয়ে বাংলা নববর্ষ ১৪২৬ উদযাপন

১৫ এপ্রিল ২০১৯ , ০৫:৩৬:০৬

ছবি: প্রতিনিধি

মোকলসে খান: ব্রুনাইস্থ বাংলাদেশ হাইকমিশন প্রাঙ্গনে বিপুল উৎসাহ উদ্দীপনা আর উৎসব মুখরতার মধ্য দিয়ে বাংলা নববর্ষ ১৪২৬ উদযাপন করা হয়। ব্রুনাই দারুসসালামে নিযুক্ত হাইকমিশনার এয়ার ভাইস মার্শাল (অব.) মাহমূদ হোসেন বৈশাখী মেলা ও বৈশাখী সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের শুভ উদ্বোধন করেন।

বর্ণিল পোশাকে সজ্জিত শিশু-কিশোরদের উচ্ছ্বাসপূর্ণ উপস্থিতিতে সমগ্র এলাকা উৎসবের আমেজে ভরে ওঠে। ঢোল, একতারা, বাঁশী, মুখোশ, কুলা আর আবহমান বাংলার চিরায়ত ঐতিহ্যের নানা সামগ্রী সকলের মধ্যে নতুন প্রাণের সঞ্চার করে। এক বাংলাদেশী এক ব্রুনাইয়ান শ্লোগান কে ধারণ করে বাংলাদেশীদের পাশাপাশি বিদেশীরাও এই প্রাণের মেলায় স্বতঃস্ফূর্তভাবে যোগ দেন। মেলায় বিভিন্ন সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান স্টল স্থাপন করে যেখানে নানা ঐতিহ্যবাহী পিঠা, ঝালমুড়ি, চটপটি, ফুচকা, কুটির শিল্প, দেশী বস্ত্রসহ প্রায় ১৪টি স্টল ছিল।

‘এসো হে বৈশাখ’ চিরকালীন এ গানের সম্মিলিত পরিবেশনের মধ্য দিয়ে সাংস্কৃতিক পর্ব শুরু করা হয়। সঙ্গীত, নৃত্য, কবিতা আবৃত্তি ইত্যাদিতে সমবেত শিল্পীরা সবাইকে দিনভর মাতিয়ে রাখে। কাব্যের সুষমা, সঙ্গীতের মূর্ছনা প্রাণবন্ত দিনটিকে মুখর করে তোলে। সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণকারী ব্রুনাই-এ অবস্থানরত প্রবাসী শিল্পীদেরকে উপহার সামগ্রী প্রদান করা হয়।

অনুষ্ঠান শেষে হাইকমিশনার এয়ার ভাইস মার্শাল (অব.) মাহমুদ হোসেন তার সমাপনী বক্তব্যে বলেন, নববর্ষ বাঙ্গলীর সার্বজনীন প্রাণের উৎসব। বাঙ্গালীর সম্বৃদ্ধ ঐতিহ্যের অন্যতম অনুষঙ্গ বর্ষবরণ; এ দিনে আমরা পুরাতন, জীর্ণ আর ক্লেদ সরিয়ে সম্মুখ যাত্রার শুভ উদ্বোধন করি। সঙ্গীত-নৃত্য-কবিতা আর মঙ্গলালোকের শুভ উচ্ছ্বাসের ভেতর দিয়ে আমরা সামনে এগিয়ে যাবার শপথ নেই। তিনি নতুন বছরে সরকার ও দেশের সর্বাঙ্গীন সাফল্য ও সমৃদ্ধি কামনা করেন।

বিডি২৪লাইভ/এমআর

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: