প্রচ্ছদ / ক্যাম্পাস / বিস্তারিত

লিখিত দিয়ে অভিযোগ প্রত্যাহার

জাবির সাংবাদিকতা বিভাগের র‌্যাগিংয়ের ঘটনা অতিরঞ্জিত

১৭ এপ্রিল ২০১৯ , ১২:৫৪:০১

ছবি: ইন্টারনেট

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) সাংবাদিকতা ও গণমাধ্যম অধ্যয়ন বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের (৪৭ ব্যাচ) কয়েকজন শিক্ষার্থী কর্তৃক প্রথম বর্ষের (৪৮ ব্যাচ) কয়েকজন শিক্ষার্থী র‌্যাগিংয়ের শিকার হয়েছেন বলে প্রথমে মৌখিকভাবে অভিযোগ করলেও, তা ছিল মিথ্যা ও অতিরঞ্জিত এমনটি বলে রাতে লিখিত দিয়ে সে অভিযোগ প্রত্যাহার করে নিয়েছে বিভাগটির প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থীরা।
 
গত সোমবার রাতে বিশ্ববিদ্যালয় প্রক্টর বরাবর মৌখিকভাবে দেওয়া এ অভিযোগ ‘অতিরঞ্জিত’ ছিল বলে দাবি করে তা প্রত্যাহার করে নিয়েছেন প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থীরা।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অফিস সূত্রে জানা গেছে, গত সোমবার রাত সাড়ে নয়টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় খেলার মাঠে সাংবাদিকতা ও গণমাধ্যম অধ্যয়ন বিভাগের প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থীদেরকে দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থীরা ‘র‌্যাগিং’ দিচ্ছেন বলে অভিযোগ ওঠে। খবর পেয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রক্টর আ স ম ফিরোজ-উল-হাসানসহ প্রক্টরিয়াল বডির সদস্যরা ঘটনাস্থলে উপস্থিত হলে তাঁদের সামনে প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থীরা র‌্যাগিংয়ের মৌখিক অভিযোগ প্রদান করেন।

অভিযোগকারি শিক্ষার্থীরা বলেন, ‘গত সোমবার বিকেলে বিভাগের অন্তঃবিভাগ ক্রিকেট খেলা ছিল। খেলায় প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী ইমরান হোসেনের অংশগ্রহণের কথা থাকলেও তিনি মাঠে উপস্থিত হননি। সেদিন রাতে প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থীরা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় খেলার মাঠে বসে আড্ডা দিচ্ছিলেন এসময় সেখানে দ্বিতীয় বর্ষের ১০-১২ জন শিক্ষার্থী উপস্থিত হয়। তাঁরা ইমরানকে খেলায় অংশ না নেওয়ার কারণ জিজ্ঞেস করেন। ইমরান কোন উত্তর না দিলে দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থীরা তাঁর সাথে উচ্চস্বরে কথা বলে, গালাগালি করে এবং এরপর তাঁরা সেখান থেকে চলে যান।’

এদিকে ঘটনার দিন রাতে মৌখিকভাবে দেওয়া অভিযোগ ‘অতিরঞ্জিত ও ঘটনায় উত্তেজিত হয়ে বাড়িয়ে বলেছে বলে সোমবার রাত সাড়ে আটটার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ও প্রক্টরের কাছে লিখিতভাবে জানিয়ে অভিযোগপত্র প্রত্যাহার করে নিয়েছেন প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থীরা। 

প্রত্যাহারপত্রে শিক্ষার্থীরা উল্লেখ করে বলেন, ‘সেদিন রাতের ঘটনা অনাকাঙ্ক্ষিত ছিল। ভুল বোঝাবুঝি ও মনোমালিন্য থেকে তাঁরা প্রক্টরের কাছে মৌখিকভাবে অভিযোগ করেছিলেন। এ অভিযোগ আমলে না নেওয়ার জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনকে লিখিতভাবে অনুরোধ করেছেন তাঁরা।’

বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রক্টর আ স ম ফিরোজ-উল-হাসান বলেন, ‘সাংবাদিকতা বিভাগের শিক্ষার্থীরা সোমবার রাতে মৌখিকভাবে যে অভিযোগ করেছেন, তা আজ (মঙ্গলবার) লিখিত দিয়ে প্রত্যাহার করে নিয়েছেন। তাঁরা বলেছেন, ‘মৌখিক অভিযোগ অতিরঞ্জিত ছিল। তাই এ বিষয়ে প্রক্টরিয়াল বডি কোন সিদ্ধান্ত নিচ্ছে না।’

বিডি২৪লাইভ/এমআর

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: