প্রচ্ছদ / জাতীয় / বিস্তারিত

অনলাইন অ্যাপে মিলবে ট্রেনের টিকিট

১৯ এপ্রিল ২০১৯ , ১১:০৭:০০

ছবি: প্রতীকী

আগামী ২৮ এপ্রিল রাজধানীর কমলাপুর রেলস্টেশন থেকে অনলাইন অ্যাপের মাধ্যমে ট্রেনের টিকিট বিক্রয় উদ্বোধন করা হবে। অ্যাপের মাধ্যমে ৫০ শতাংশ টিকিট বিক্রি হবে। এ তথ্য জানিয়েছেন রেলমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন।

বৃহস্পতিবার (১৮ এপ্রিল) কমলাপুর স্টেশনে অংশীজন সভাশেষে তিনি এ কথা জানান।

এ ক্ষেত্রে টিকিটের মূল্য পরিশোধ করা যাবে ভিসা এবং মাস্টার কার্ড ছাড়াও বিকাশ অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে।

রেলমন্ত্রী বলেন, ঈদযাত্রার আগাম টিকিটের ভিড় এড়াতে এবারের ঈদে কমলাপুরের বাইরেও বিক্রি হবে ট্রেনের টিকিট। ঈদের আগে ঢাকা-পঞ্চগড় রুটে নতুন ট্রেন চালু হবে। ঢাকা থেকে পার্বতীপুর পর্যন্ত বিরতিহীন চলবে এ ট্রেন। ঈদের পর বিরতিহীন ট্রেন চালু হবে ঢাকা-বেনাপোল রুটে।

মন্ত্রী বলেন, গণমাধ্যম, যাত্রী ও রেলের সেবাগ্রহীতাদের প্রবেশাধিকার না থাকায় তিনি দুঃখিত। শিগগির তিনি সবাইকে নিয়ে একটি উন্মুক্ত গণশুনানি করবেন। সেখানে রেল সম্পর্কে যাত্রী ও সেবাগ্রহীতাদের অভিযোগ শুনবেন।

আওয়ামী লীগ টানা তৃতীয়বারের মতো ক্ষমতায় এলেও রেলের বিদ্যমান দুর্দশার জন্য বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারকেই দায়ী করেন রেলমন্ত্রী। তিনি বলেন, বিএনপি-জামায়াত জোট সরকার রেলকে মেরে ফেলেছিল। ১৯৯১ সালে একদিনে রেলের ১০ হাজার কর্মীকে বিদায় দেয়া হয়। বহু স্টেশন ও রেলপথ বন্ধ করে দেয়। আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এসে সেগুলো চালু করছে।

নুরুল ইসলাম সুজন বলেন, ৮০ শতাংশ যাত্রী পরিবহন হয় সড়কপথে। তিনি চেষ্টা করছেন রেলের ‘যৌবন’ ফিরিয়ে যাত্রী পরিবহন বাড়াতে।

নতুন চালু হতে যাওয়া অ্যাপের মাধ্যমে একজন যাত্রী টিকিট কেনার আগে ট্রেনের আসনবিন্যাসও দেখে নিতে পারবে। এ ছাড়া কোন দূরত্বে ভাড়া কত টাকা, তাও জেনে নিতে পারবে। একই সঙ্গে জানা যাবে বিভিন্ন ট্রেনের অবস্থানও। অ্যাপ ব্যবহার করে যাত্রীরা সেবার মান বিষয়ে রেটিংও দিতে পারবে।

মন্ত্রী জানান, অ্যাপ চালু হলে বেশির ভাগ টিকিটই বিক্রি করা হবে এর মাধ্যমে।

এদিকে কাউন্টার থেকে ট্রেনের টিকিট কিনতে গেলে জাতীয় পরিচয়পত্র বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। ঈদুল ফিতরের আগে সব ট্রেনেই তা বাধ্যতামূলক হয়ে যাবে বলে রেলওয়ে সূত্রে জানা গেছে।

মন্ত্রী জানান, আগামী ২৬ এপ্রিল ঢাকা-রাজশাহী রুটে বিরতিহীন ট্রেন ‘বনলতা এক্সপ্রেস’ উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

এছাড়াও আসছে ঈদে রাজধানীর পাঁচটিসহ মোট ছয়টি স্থান থেকে ঈদের অগ্রিম ট্রেনের টিকিট পাওয়া যাবে বলে জানিয়েছেন রেলমন্ত্রী নূরুল ইসলাম সুজন।

মন্ত্রী বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি), ফুলবাড়িয়া, মিরপুর, কমলাপুর, বিমানবন্দর রেলস্টেশন ও গাজীপুরের জয়দেবপুর থেকে ঈদের ট্রেনের টিকিট কাটা যাবে।

বিডি২৪লাইভ/এইচকে

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: