প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

দুর্নীতির কারণে কাজও নিম্নমান

রিটার্নিং ওয়াল তৈরির দুই মাসের মধ্যে ধস

১৯ এপ্রিল ২০১৯ , ১০:০০:০০

ছবি: প্রতিনিধি

১০ কোটি টাকা ব্যয়ে কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশনের (কুসিক) এর নির্মিত রিটার্নিং ওয়াল নির্মাণের দুই মাসের মধ্যেই ধসে পড়ায় জনমনে ক্ষোভ বিরাজ করছে। নগরীর নোয়াগাঁও চৌমুহনী থেকে বেলতলী সড়কের নোয়াগাঁও রেলগেইটের পূর্ব অংশে আনুমানিক দুইশো মিটার রিটার্নিং ওয়াল খালে ধসে পড়ে।

বৃহস্পতিবার ( ১৮ এপ্রিল) বিকেলে ঘটনাটি ঘটে। এ ঘটনার পর সিটি কর্তৃপক্ষ পরিদর্শন করেছেন।

কুসিক সূত্র জানায়, নগরীর নবাব বাড়ি চৌমুহনী থকে নোয়াগাঁও হয়ে বেলতলী ব্রিজ পর্যন্ত ৯ কিলোমিটার দীর্ঘ এই রিটার্নিং ওয়ালের নির্মান ব্যয় প্রায় দশ কোটি টাকা। ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান এমসিএইচএল এবং হক এন্টারপ্রাইজ যৌথ উদ্যাগে নির্মান কাজটি করেছেন।

স্থানীয় বাসিন্দারা ক্ষোভের সাথে বলেন- নগরীতে মোটা বাজেটের কাজ এতো নিম্নমানের হওয়ার কারণে বেশিদিন টিকে থাকেনি। ঠিকাদার নিম্নমানের রড, সিমেন্টসহ সামগ্রী ব্যবহার করার কারণে ধসে পড়েছে।

নোয়াগাঁও থেকে বেলতলী পর্যন্ত বিভিন্ন জায়গায় এই রিটার্রিং ওয়াল কোথাও কোথাও বাঁকা ও ফাটোল দৃশ্যমান আছে।

স্থানীয়রা আরও বলেন, সকলেই দুর্নীতিবাজ, কর্মকর্তাদেরকে ঠিকাদাররা মোটা অংকের টাকার বিনিময়ে ম্যানেজ করে এ কাজটি করেছে। ইঞ্জিনিয়াররা গাড়ি দিয়ে ঘুরে ঘুরে দেখেন, কিন্তু গাড়ি থেকে মেনে কোন রকম পরীক্ষা নিরীক্ষা ছাড়াই বিল পাশ করে ফেলেন।

কুসিকের মেয়র মনিরুল হক সাক্কু বলেছেন, ধসে পড়ার পর বৃহস্পতিবার কুসিকের প্রকৌশলীরা উক্ত স্থানটি পরিদর্শন করেছেন। সাথে ওয়াল্ডব্যাংক কর্মকর্তারাও উপস্থিত ছিলেন। প্রাথমিক ভাবে রেল লাইন নির্মানের ভারি যানবাহনের কারণে ঘটনাটি ঘটেছে বলে ধারণা করছি। বিষয়টি তদন্ত করে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

বিডি২৪লাইভ/এজে

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: