প্রচ্ছদ / সারাবিশ্ব / বিস্তারিত

হামলাকারীরা সবাই শ্রীলঙ্কার নাগরিক: শ্রীলঙ্কান প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত: ০৯:৫০ পূর্বাহ্ণ, ২২ এপ্রিল ২০১৯

ছবি: ইন্টারনেট থেকে

শ্রীলঙ্কায় ভয়াবহ সিরিজ বিস্ফোরণে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ২৯০ জনে দাঁড়িয়েছে। আহত হয়েছেন আরও অন্তত ৫০০ জন। নিহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে যুক্তরাজ্যভিত্তিক সংবাদমাধ্যম দ্য গার্ডিয়ান।

এ হামলার এখনও পর্যন্ত ২৪ জনকে আটক করা হয়েছে। যারা সবাই শ্রীলঙ্কার নাগরিক বলে জানিয়েছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী।

বিবিসির এক প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, শ্রীলঙ্কার প্রধানমন্ত্রী রনিল বিক্রমাসিংহে বলেছেন, তার দেশে যে বোমা হামলায় ২৯০ জন নিহত হয়েছেন, তার সঙ্গে জড়িত সন্দেহে পুলিশ ২৪ ব্যক্তিকে আটক করেছে। এখন পর্যন্ত আটক আট ব্যক্তির পরিচয় থেকে জানা গেছে তারা সবাই শ্রীলঙ্কার নাগরিক। তবে তাদের সঙ্গে বিদেশের কারও যোগাযোগ আছে কি-না এখন সেটি যাচাই করে দেখা হচ্ছে।

দুই শতাধিক মানুষ নিহত হওয়া ছাড়াও আহত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি আছেন প্রায় ৫০০ জন। নিহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। বিদেশি নাগরিক নিহত হয়েছেন ৩৫ জন। তার মধ্যে বাংলাদেশের একজন রয়েছেন।

রোববার (২১ এপ্রিল) স্থানীয় সময় সকাল সাড়ে ৮টার দিকে ৬টি গির্জা ও শহরের প্রধান দু’টি হোটেলকে লক্ষ্য করে ইস্টার সানডে’র অনুষ্ঠান চলার মধ্যে এসব বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। তবে কে বা কোন জঙ্গি গোষ্ঠী এই বিস্ফোরণ ঘটায় তা এখনো জানা যায়নি।

মৃত্যুর সংখ্যা ক্রমেই বেড়ে চলছে বলে কলম্বো ন্যাশনাল হাসপাতালের প্রধান চিকিৎসক ডা. আনিল জাসিংগে বলেন, সময়ের সঙ্গে সঙ্গে হাসপাতালে লাশের সংখ্যা যেন বেড়েই চলেছে। তবে সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে মনে করেন তিনি।

এক প্রতিবেদনে রয়টার্স বলে, সকালে ইস্টার সানডে উপলক্ষে অনেক মানুষের ঢল নামে কলম্বোর গির্জাগুলোতে। এসময় ৩টি গির্জা একসঙ্গে সিরিজ বোমা হামলা ঘটানো হয়, ওই কলম্বো শহর থেকে কিছু দুরে অবস্থিত আরও কয়েকটি গির্জায় হামলা চালানো হয়। এদিকে শুধু গির্জায় হামলা করেই ক্ষান্ত হয়নি জঙ্গিরা গির্জার পাশে অবস্থিত শহরের প্রধান দু’টি হোটেলেও সিরিজ বোমা হামলা চালানো হয়।

বিডি২৪লাইভ/এইচকে

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: