ভোগান্তিতে শিক্ষার্থীরা, ব্যবস্থা নিচ্ছে না কর্তৃপক্ষ

২৩ এপ্রিল ২০১৯ , ০৬:৩৫:০০

ছবি: প্রতিনিধি

রাজধানীতে অবস্থিত দেশের অন্যতম দুই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ইডেন মহিলা কলেজ ও বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়। এই দুই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান শিক্ষার্থীদের নানান বিষয়ে খোঁজ-খবর নেওয়াসহ বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা প্রদান করে থাকলেও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান গুলোর রাস্তায় যত্রতত্র ডাস্টবিন গড়ে ওঠার ফলে প্রতিনিয়ত নানা সমস্যার মুখোমুখি হতে হয় শিক্ষার্থীদের। শিক্ষার্থীদের পাশাপাশি ভোগান্তিতে পড়ছে পথচারী এবং নগরবাসীরা।

এসব খোলা ডাস্টবিন থেকে ছড়াচ্ছে দুর্গন্ধ। হচ্ছে বায়ু দূষণ। তাছাড়া ডাস্টবিনগুলো রাস্তার বেশ খানিকটা অংশ জুড়ে থাকায় সৃষ্টি হচ্ছে যানজটের।

অন্যদিকে ছড়িয়ে-ছিটিয়ে থাকা ময়লা-আবর্জনায় বন্ধ হয়ে যাচ্ছে পয়োনিষ্কাশন নালা। ফলে বর্ষার দিনে পানি জমে ভোগান্তিতে পড়তে হচ্ছে নগরবাসীর।

সরেজমিনে রাজধানীর নীলক্ষেত আবাসিক এলাকা ঘুরে দেখা যায় প্রধান সড়কে ছোট-বড় মিলে চারটি ডাস্টবিনের কন্টিনার পরে আছে। এছাড়া বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের গেটের সাথে মূল রাস্তায় আরও দুইটি ডাস্টবিনের কন্টিনার দেখা যায়। ইডেন মহিলা কলেজ মূল ফটকে একটি কন্টিনার পড়ে থাকতে দেখা যায়।

ইডেন মহিলা কলেজের প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী জাফরানা আক্তার অভিযোগ করে বিডি২৪লাইভকে বলেন, কলেজ শেষ করে বাসায় যাওয়ার সময় ময়লা এবং দুর্গন্ধের কারণে এই রাস্তা দিয়ে যাতায়াত করতে খুবই কষ্ট হয়। নাক চেপে ধরে দ্রুত যেতে হয় এখান দিয়ে। বৃষ্টি পরলে এই রাস্তার অবস্থা আর বেশি খারাপ হয়ে যায়। তখন হাঁটলে ময়লায় জামা-কাপড় মেখে যায়।

তবে, এ বিষয়ে জানতে চাইলে ইডেন কলেজের কর্তৃপক্ষ কথা বলতে অস্বীকৃতি জানায়।

অপরদিকে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থী নাম না প্রকাশ করা শর্তে বলেন, এটা খুবই দুঃখজনক যে দেশের স্বনামধন্য একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের সামনে ময়লার ডাস্টবিন থাকবে। আমার মতে কর্তৃপক্ষের এ ব্যাপারে ব্যবস্থা নেওয়া উচিত।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের বর্জ্য ব্যবস্থাপনা স্ট্যান্ডিং কমিটির সভাপতি ও ২৬ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর হাবিবুর রহমান মানিক বিডি২৪লাইভকে বলেন, পি ডব্লিউ ভবনে যারা থাকেন তাদের ময়লা ফেলার কোন জায়গা নেই। আমাদের ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র বলেছিলেন একটা পরিত্যক্ত জায়গা দেওয়ার জন্য। আমরা সেখানে ওয়ার হাউজ করে দিতে চেয়েছি কিন্তু তারা আমাদেরকে দেয়নি। তাদের পর্যাপ্ত জায়গা আছে তারপরও দিচ্ছে না। আর হোম ইকোনমিক্স কলেজের পিছনে যে ডাস্টবিন আছে সেটা অন্য আরেক ওয়ার্ডের কন্টিনার।


তিনি আরও বলেন, আমার কথা হচ্ছে এক ওয়ার্ডের ময়লা অন্য ওর্য়াডে কেনো আসবে। যার যার কন্টিনার তার তার ওয়ার্ডে থাকবে। অতীতে এটা ব্যবস্থা নেওয়ার কথা ছিলো কিন্তু সিটি করপোরেশন এটা ব্যবস্থা নেয়নি। আমরা চাই যার যার কন্টিনার তার তার ওয়ার্ডে থাকবে।

আবার ইডেন কলেজের সামনে যে কন্টিনার সেটা ইডেন কলেজেরই ময়লা ফেলে। আমরা অনেকবার ইডেন কলেজ কর্তৃপক্ষকে বলেছি আমাদের একটা জায়গা দেওয়ার জন্য। যেখানে তারা ময়লা ফেললে আমরা প্রতিদিন একটা নির্দিষ্ট সময়ে ঐ ময়লা পরিষ্কার করে দিব। কিন্তু তারা ভেতরে কোন জায়গা দেননি আমাদের। এটা ইডেন কলেজ কর্তৃপক্ষের অবহেলা।

বিডি২৪লাইভ/এইচকে

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: