প্রচ্ছদ / জাতীয় / বিস্তারিত

জায়ানের লাশ ঢাকায়, শোকস্তব্ধ বিমানবন্দর

২৪ এপ্রিল ২০১৯ , ০১:১০:০০

ছবি: ফাইল ফটো

শ্রীলঙ্কায় সংঘটিত নারকীয় সিরিজ বোমা হামলায় নিহত আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য শেখ ফজলুল করিম সেলিমের নাতি জায়ান চৌধুরীর মরদেহ মরদেহ দেশে আনা হয়েছে।

আজ বুধবার (২৪ এপ্রিল) বেলা ১২টা ৪২ মিনিটের দিকে শ্রীলঙ্কা থেকে তার মরদেহ বহনকারী উড়োজাহাজ হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এসে পৌঁছায়।

এ সময় এক শোকাবহ পরিবেশের সৃষ্টি হয় জায়ানের পরিবারের সদস্য ও আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের মাঝে। কেউ যেন কান্না থামাতে পারছিল না। চোখে চোখ রাখতেই সকলেরই অঝরে জল পড়ছে শিশু জায়ানের জন্য। এ কান্না কষ্টের না ক্ষোভের তা বোঝা মুহূর্তে বলা মুশকিল বলছিল আগতরা। কেন এমন নারকীয় হত্যাযজ্ঞা চালাচ্ছে জঙ্গী গোষ্ঠীরা একের পর এক প্রশ্ন সকলের।

গত ২১ এপ্রিল ইস্টার সানডের প্রার্থনার মধ্যে গির্জা ও হোটেল মিলিয়ে ৮টি স্থানে বোমা হামলায় রক্তাক্ত হয় শ্রীলঙ্কার রাজধানী কলম্বো।

এ সময় একটি পাঁচতারা হোটেলে দুই ছেলে ও স্বামীকে নিয়ে ছিলেন শেখ সেলিমের মেয়ে শেখ আমেনা সুলতানা সোনিয়া। হোটেলের নিচতলার রেস্তোরাঁয় সকালের নাস্তা করতে গিয়েছিলেন প্রিন্স ও তার বড় ছেলে জায়ান চৌধুরী। ছোট ছেলে জোহানকে নিয়ে শেখ সোনিয়া ওই সময় হোটেলের কক্ষে ছিলেন।

এ সময় বোমা হামলার ঘটনা ঘটলে প্রিন্স আহত হন এবং ছেলে জায়ান নিখোঁজ হয়। পরে জায়ানের মৃত্যু খবর আসে।

জানা যায়, সেলিমের মেয়ে শেখ আমেনা সুলতানা সোনিয়া তার স্বামী মশিউল হক চৌধুরী প্রিন্স ও দুই ছেলেকে নিয়ে শ্রীলঙ্কায় বেড়াতে গিয়েছিলেন। তারা উঠেছিলেন কলম্বোর পাঁচ তারকা একটি হোটেলে।

প্রসঙ্গত, রবিবার (২১ এপ্রিল) শ্রীলঙ্কায় ইস্টার সানডের প্রার্থনার সময় ৩টি গির্জা, ৩টি অভিজাত হোটেল ও রাজধানী কলম্বোর পার্শ্ববর্তী অপর দুটি এলাকার সহ মোট ৮ জায়গায় আত্মঘাতী সিরিজ বোমা হামলা চালানো হয়। আত্মঘাতী বিস্ফোরণে ৩৫৯ জন নিহত হন, আহত হয় ৫০০ জন। নিহতের সংখ্যা বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

বিডি২৪লাইভ/এসবি/টিএএফ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: