প্রচ্ছদ / বিনোদন / বিস্তারিত

‘আমার মত আর কোন মেয়ের সাথে যেন এমন না হয়’

২৪ এপ্রিল ২০১৯ , ০৭:৫৬:০২

‘একজন রকস্টার এর বাইরেও আমি একজন মেয়ে। যে দেশের প্রধানমন্ত্রী একজন নারী সে দেশেরই একজন মেয়ে হয়ে আমার উপর এত অত্যাচার করার পরও সেই ছেলেটা (পারভেজ সানজারি) এখনও কিভাবে বুক ফুলিয়ে কাজ করছে, ঘুরে বেড়াচ্ছে।’ এভাবেই কথাগুলো বলছিলেন পপ গায়িকা মিলা।

আজ বুধবার (২৪ এপ্রিল) বিকেলে ‘মিলার পাশে আমরা’ স্লোগানে এক সংবাদ সম্মেলনে কথাগুলো বলেন মিলা।

তিনি বলেন, ‘একটা ছেলেকে ভালোবেসে বিয়ে করেছিলাম। বিয়ের রাত থেকেই তার মধ্যে আমি এক অন্যরকম পরিবর্তন দেখতে পাই। সেদিনই সে আমাকে বলে যে সে নাকি ভুল করে ফেলেছে আমাকে বিয়ে করে। আমি কথাটা শুনে স্তব্ধ হয়ে যাই। আমি একটা মেয়ে হয়ে, ঘরের বউ হয়ে সংসারি হতে চেয়েছিলাম। সে আমার সঙ্গে যা করেছে তারপরও তাকে বারবার ক্ষমা করে দিয়েছি। আমি তার স্ত্রী থাকা সত্ত্বেও সে মিডিয়ার অন্যান্য মেয়ে ও এয়ার হোস্টেজদের সাথে শারীরিক সম্পর্কে লিপ্ত থাকে বলে জানতে পারি। এটা আমার জন্য যে কতটা লজ্জার!’

তিনি আরও বলেন, আমি এগুলা নিয়ে কিছু বললেই আমাকে শারীরিকভাবে নির্যাতন করতো। আমি চুপ করে সহ্য করতাম। আমার কপালে, হাতে সিগারেট দিয়েও পুড়িয়ে দিয়েছে সে। তারপরও আমি চুপ ছিলাম। এত অত্যাচার আর নিতে পারছিলাম না। আমি তার নামে মামলা করি থানায়। সেখানে ইউএসবাংলা এয়ারলাইন্স থেকে মামলা না নিতে ফোন আসে। আমার মামলা যেন না নেয়। ওই ছেলেটা এত সাহস কোথায় পায়! ইউএস বাংলা তার মত চরিত্রহীন ছেলেকে এখনও কিভাবে রাখে? কিসের ভিত্তিতে রাখে? একজন এয়ারহোস্টেজের সাথে নগ্ন ছবি দেখানোর পর মেয়েটার চাকরি চলে যায় কিন্তু তার কেন যায় না? তাকে এত সাপোর্ট কেন দিচ্ছে? আমি আমার সাথে ঘটা অত্যাচারের বিচার চাই। আমার মত আর কোন মেয়ের সাথে যেন এমন না হয়। আর সে কিসের পাইলট, তাকে কেন চাকরি থেকে বের করছে না?’

এর আগে নিজের ফেসবুক পেইজে মিলা তার বিবা‌হিত জীব‌নের ঘটনা তার ভক্তদের সঙ্গে শেয়ার করেন। সেখানে মিলার স্বামী বৈমানিক পারভেজ সানজারি ও তার পরিবার মিলার উপর কেমন অমানসিক নির্যাতন করেছেন তার বর্ণনা দেন মিলা।

এছাড়াও নারী নির্যাতন-যৌতুকের অভিযোগে এনে স্বামীর বিরুদ্ধে করা মামলা তুলে নেওয়ার জন্য তার প্রতি আসা হুমকির কথাও জানান। এমনকি বাথরুম থেকে নগ্ন অবস্থায় টেনে বের করে এনে মানুষের সামনে শাশুড়ির অকথ্য গালিগালাজ করার কথাও জানান।

ন্যায় বিচারের দাবিতে করা সংবাদ সম্মেলনে তিনি খুলে বলেন তার বিবাহিত জীবনের নানা ঘটনা। ন্যায় বিচারের জন্য তার পাশে সবাই‌কে থাকার জন্য আহ্বান জানান।

উল্লেখ্য, টানা দশ বছর প্রেমের সম্পর্কের পর ২০১৭ সালের মে মাসে পারিবারিকভাবে বৈমানিক পারভেজ সানজারির সঙ্গে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন মিলা ইসলাম। বিয়ের পর গানে অনিয়মিত হয়ে পড়েন তিনি। জড়িয়ে যান সংসার জীবনের দ্বন্দ্ব-বিবাদে। তিন মাস পর জানতে পারেন অন্যান্যা মেয়েদের সাথে পরকিয়ার কথা। এরপরই তাদের মাঝে শুরু হয় দ্বন্দ্ব এবং সেটা বিচ্ছেদে রূপ নেয় একই বছরে।

বিডি২৪লাইভ/আরআই/আইএন

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: