প্রচ্ছদ / ক্যাম্পাস / বিস্তারিত

বিশ্ববিদ্যালয় নিয়ে কটূক্তি, দোকানিকে শিক্ষার্থীদের মারধর

প্রকাশিত: ০৮:০০ পূর্বাহ্ণ, ২৬ এপ্রিল ২০১৯

ছবি: প্রতীকী

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়কে (কুবি) নিয়ে কটূক্তি করার অভিযোগে এক দোকানিকে মারধর করেছে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা।

বৃহস্পতিবার (২৫ এপ্রিল) সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটক সংলগ্ন একটি দোকানে এক ছাত্রী বিকাশ থেকে টাকা তুলতে গেলে তার সাথে এ ঘটনা ঘটে বলে জানা যায়।

ঘটনা সূত্রে জানা যায়, কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় সংলগ্ন বিসমিল্লাহ হার্ডওয়্যার নামের একটি দোকানে মোবাইল ব্যাংকিং বিকাশ থেকে টাকা তুলতে যায় নৃবিজ্ঞান বিভাগের ১১তম ব্যাচের এক ছাত্রী। ভাংতি টাকা নিয়ে দোকানদার সাদ্দামের সাথে কথা-কাটাকাটির এক পর্যায়ে ঐ ছাত্রীকে বিশ্ববিদ্যালয় নিয়ে কুরুচিপূর্ণ গালি দেয়। এতে ঐ শিক্ষার্থী কান্না করতে থাকলে ঘটনাটি তার সহপাঠিদের নজরে আসে। ছাত্রীর কাছ থেকে ঘটনা শুনে তার বিভাগের শিক্ষার্থীরা বিক্ষুব্ধ হয়ে অভিযুক্ত দোকানিকে মারধর করে। শিক্ষার্থীরা এক পর্যায়ে দোকান বন্ধ করে দেয়। পরে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টরিয়াল বডির সহায়তায় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। দোকানের মালিক ও শিক্ষার্থীদের নিয়ে প্রক্টর বিষয়টি মিমাংসা করে দেন এবং অভিযুক্ত ঐ দোকানি ভবিষ্যতে এমন কাজ করবে না বলে মুচলেকা দিয়ে সবার কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করেন।

ঘটনাস্থলে বেশ কয়েকজন শিক্ষার্থীর সাথে কথা বললে তারা জানান, বিশ্ববিদ্যালয়কে অসম্মান করে কথা বলায় এবং এর আগেও বিভিন্ন সময়ে শিক্ষার্থীদের সাথে খারাপ ব্যবহার করায় আমরা ঐ দোকানিকে মারধর করি। পরে আমরা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টরের কাছে বিচার দাবি করি।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত দোকানি সাদ্দামের বড় ভাই ও দোকানটির মালিক মিজান বলেন, আমার ছোট ভাই না বুঝে বিশ্ববিদ্যালয় সম্পর্কে মন্তব্য করেছে। সামনে থেকে আর এমন হবে না।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড. কাজী মোহাম্মদ কামাল উদ্দিন বলেন, আমরা শিক্ষার্থীদের বুঝিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এনেছি। অভিযুক্ত দোকানি থেকে মুচলেকা নেয়া হয়েছে। সামনে থেকে কেউ বিশ্ববিদ্যালয় নিয়ে মানহানিকর কিছু বললে তার বিরুদ্ধে আইন অনুযায়ী কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে।

বিডি২৪লাইভ/এআইআর

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: