বিডি২৪লাইভকে মাশরাফি বিন মর্তুজা

‘আমি আমার সেরাটা দেওয়ার চেষ্টা করি’

৩০ এপ্রিল, ২০১৯ ১৮:০৪:০০

ছবি: প্রতিনিধি

দরজায় কড়া নাড়ছে ইংল্যান্ড বিশ্বকাপ। আর মাত্র ৩০ দিন পর মাঠে গড়াবে ক্রিকেটের এই মহাযজ্ঞ। এমতাবস্থায় বিশ্বকাপকে সামনে রেখে প্রস্তুতি নিচ্ছে টিম-টাইগার।

বিশ্বকাপে বাংলাদেশে নেতৃত্বে দিবেন মাশরাফি বিন মর্তুজা। যিনি বাংলার ক্রিকেট ইতিহাসের এক উজ্জ্বল নক্ষত্র। ইনজুরির কারণে কখনো হার মানেননি সফলতম এই টাইগার কাপ্তান। তিনি তাঁর ক্যারিয়ারে দুই হাঁটুতে অস্ত্রোপচার করেছেন সাতবার আর ছোট-বড় মিলিয়ে মোট অস্ত্রোপচারের সংখ্যা ১৩টিরও বেশি। তারপরেও ইনজুরির কাছে মাথা নত করেননি ম্যাশ। এখনও ইনজুরি নিয়ে তিনি খেলে যাচ্ছেন অনবদ্য।

বিশ্বকাপে অংশ নেওয়ার আগে বিডি২৪লাইভের সাথে একান্তে কথা বলেছেন টাইগার কাপ্তান মাশরাফি বিন মর্তুজা। তার সাক্ষাৎকারটি নিয়েছেন ইমরান হোসেন।

বিডি২৪লাইভ: আপনার স্মরণীয় বিশ্বকাপটির কোনটি?

মাশরাফি বিন মর্তুজা: ২০০৭ বিশ্বকাপে ভারত ফেবারেট ছিলো। সেই বিশ্বকাপে আমরা ভারতকে পরাজিত করে দ্বিতীয় রাউন্ডে উঠি। তাই এটাই আমারে কাছে সবচেয়ে স্মরণীয় বিশ্বকাপ।

বিডি২৪লাইভ: অনেক বছর ধরেই তো ক্রিকেটের সাথে যুক্ত আছেন। বিশেষ কিছু কি করেছেন?

মাশরাফি বিন মর্তুজা: আমি ক্রিকেটের সাথে লেগে আছি। অনেকবার ইনজুরি হয়েছি কিন্তু কখনও হাল ছাড়িনি। কামব্যাক করার চেষ্টা করেছি সবসময়। আমি এটা বিশ্বাস করি মানুষ যদি চায়- চেষ্টা করে, মেহনত করে তাহলে আল্লাহ কিছু দেয়। হয়তোবা আমি শেষ বয়সে এসেও কিছু পেয়েছি। অনেকদিন ধরে খেলেছি। ক্যাপ্টেন্সি করেছি। বিশ্বকাপের মত আসরে কোয়ার্টার ফাইনালে গিয়েছি। সব কিছুর জন্য চেষ্টা করেছি এই আর কি।

বিডি২৪লাইভ: টিম ম্যানেজমেন্টে আপনি বরাবরই দক্ষতার পরিচয় দিয়েছেন। কিভাবে আপনি এতো সুন্দর করে দল গুছিয়ে রাখেন?

মাশরাফি বিন মর্তুজা: খুব স্বাভাবিকভাবে যখন খেলোয়ার সিলেকশন হয় সে তার রুলটা জানে। তাকে কোন অর্ডারে ব্যাটিং করতে হবে। যেমন ধরেন সাব্বির যদি সাত নম্বর পজিশনে ব্যাটিং করে তাহলে ওর জন্য লিমিটেড ওভার থাকবে এবং ওর এবিলিটি সম্পর্কেও আপনারা জানেন। আলাদা করে বলা তো হয়ই।

বিডি২৪লাইভ: ব্যক্তি মাশরাফি না ক্রিকেটার মাশরাফি? আপনি কোনটিকে এগিয়ে রাখবেন?

মাশরাফি বিন মর্তুজা: এইতো সেদিন প্রেস কনফারেন্সে আমাকে একজন প্রশ্ন করল বিশ্বকাপ আমার কাছে কি? আমি বললাম কিছুই না। বিষয়টা আমার কাছে এই রকমই। আমি সব সময় আমার সেরাটা দেওয়ার চেষ্টা করি। আমি যদি বিশ্বকাপ জিতে আসি তাহলে এটা আমার অর্জন হবে না। এটা সবার অর্জন হবে। ব্যক্তি মাশরাফিকে আমি আসলে এতোটা গুরুত্ব দেই না। এশিয়া কাপে ফাইনালে হেরেছিলাম এটা কিন্তু আমরা সবাই হেরেছি। আবার জিতলে আমি একা জিততাম তাও না। ক্রিকেটার হিসেবে আমি সবসময় নিজের সেরাটা দেওয়ার চেষ্টা করি।

বিডি২৪লাইভ/এইচকে

বিডি টুয়েন্টিফোর লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: