প্রচ্ছদ / সারাবিশ্ব / বিস্তারিত

ফণী আতঙ্কে কাঁপছে ওড়িশা

২ মে ২০১৯ , ১১:০২:০০

ছবি: ইন্টারনেট থেকে

প্রবল শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড় আছড়ে পড়তে চলেছে ভারতের ওড়িশা উপকূলে। সতর্ক নজর রাখছে কেন্দ্রীয় সরকার। ওড়িশার উপরের তাণ্ডব চালাবে ফণী। যার ভয়ে আগে থেকেই একাধিক সতর্কতা মূলক পদক্ষেপ নিয়েছে ওড়িশা সরকার।

মৎস্যজীবীদের সমুদ্রে যেতে নিষেধ করা হয়েছে। মুখ্যমন্ত্রী নবীন পট্টনায়ক সরকারি কর্মীদের ছুটি বাতিল করার নির্দেশ দিয়েছেন। ইতিমধ্যেই উপকূলবর্তী এলাকা খালি করে দিতে বলেছে রাজ্য সরকার। নয় উচ্চপদস্থ সরকারি আধিকারিককে পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

সৈকত শহর পুরী থেকে পর্যটকদের সরিয়ে নেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। শুক্রবার বিকেলের মধ্য দিয়ে পুরীর উপর দিয়ে বয়ে যাওয়ার কথা ফণীর। পুরীতে সারা বছরই পর্যটকদের ভিড় লেগে থাকে। সে কারণে আগাম সতর্কতা হিসেবে পুরীকে পর্যটক মুক্ত করার নির্দেশ জারি করেছে প্রশাসন। আর যাঁরা কোনও কারণে পুরী থেকে যেতে পারবেন না তাঁদের হোটেল থেকে বেরোতে নিষেধ করা হয়েছে।

উপকূলবর্তী এলাকার সব স্কুল কলেজে বৃহস্পতিবার থেকে ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে। আগামী ১২ ঘণ্টার মধ্যে আরও শক্তিবৃদ্ধি করে ওড়িশা উপকূলে আছড়ে পড়বে ফণী। ঘণ্টায় ১৭৫ কিলোমিটার বেগে বইবে ঝড়। জগৎসিংপুর, কটক, জাজপুর, ভদ্রক, বালাসোর,ময়ুরভঞ্জ হয়ে পশ্চিমবঙ্গে ঢুকবে ফণী।

বলা হচ্ছে ফণীর প্রভাবে দক্ষিণ ভারত, ওডিশা ও বাংলাদেশে ব্যাপক বৃষ্টি হতে পারে।

বাংলাদেশের তরফেই ঘূর্ণিঝড়টির নাম দেয়া হয়েছে ‘ফণী’। ‘এক্সট্রিমলি সিভিয়ার সাইক্লোনিক স্টর্ম’-এ পরিণত হচ্ছে ঝড়টি। ১৮৫ কিলোমিটার বেগে আছড়ে পড়তে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদফতর।

ফণী যত এগিয়ে আসছে ততই উত্তাল হচ্ছে সমুদ্র।

বিডি২৪লাইভ/এইচকে

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: