শিক্ষার্থীদের হুমকি দেওয়ায় গবি উপাচার্যের দুঃখ প্রকাশ

০৮ মে, ২০১৯ ১৬:৫৬:০০

ফাইল ফটো

মোহাম্মদ রনি খাঁ,
গণ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে:

শিক্ষার্থীদের ‘অন্য যে কেউ এসে ধরে নিয়ে যাবে’ মুঠোফোনে দেওয়া এমন মন্তব্য করে ভুল স্বীকার করে দুঃখ প্রকাশ করেছেন সাভারের গণ বিশ্ববিদ্যালয়ের (গবি) উপাচার্য (ভারপ্রাপ্ত) ডা. লায়লা পারভীন বানু।

বুধবার (৮ এপ্রিল) দুপুরে নিজ বাসভবনে বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের নিকটে এ দুঃখবোধ ব্যক্ত করেন তিনি।

এ সময় বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য ড. অধ্যাপক মেজবাহ উদ্দিন আহমেদ, রেজিস্ট্রার মো. দেলোয়ার হোসেন, পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মীর মর্ত্তুজা আলী, আইন বিভাগের বিভাগীয় প্রধান রফিকুল আলম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা জানান, ‘ডা. লায়লা পারভিন ম্যাম উনার ভুল বুঝতে পেরে অনুশোচনা প্রকাশ করেছেন। শিক্ষা মন্ত্রণালয় এবং ইউজিসি কর্তৃক পূর্ণাঙ্গ বৈধতা না পাওয়া পর্যন্ত তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের কোন একাডেমিক কাজ করবেন না বলে জানিয়েছেন।’

গবি সাধারণ ছাত্র পরিষদের সমন্বয়ক শেখ খোদাইনূর রনি জানান, ‘বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকরা এখন থেকে উনাদের অফিস করতে পারবেন। তবে পূর্ণাঙ্গ উপাচার্য না আসা অবধি আমরা আন্দোলন চালিয়ে যাব।’

উল্লেখ্য, বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন কর্তৃক বৈধ উপাচার্য নিয়োগের দাবিতে গত ৬ এপ্রিল থেকে আন্দোলন করে আসছে গণ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। পরে ২ মে বর্তমান ভারপ্রাপ্ত উপাচার্য ‘শিক্ষার্থীদের অন্য কেউ এসে ধরে নিয়ে গেলে এর দায়ভার নিবেন না’ বলার পর থেকেই আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা বিক্ষুব্ধ হয়ে উঠে। পরে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা গত ৪ মে থেকে ‘লায়লা পারভিন বানুকে উপাচার্য হিসেবে মানি না এবং উনার পদত্যাগ চাই’ মর্মে আন্দোলন শুরু করে।

বিডি২৪লাইভ/এজে

বিডি টুয়েন্টিফোর লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: