প্রচ্ছদ / রাজনীতি / বিস্তারিত

ছাত্রলীগের কমিটি পুনর্গঠনের সিদ্ধান্ত, খুশি বঞ্চিতরা

১৬ মে, ২০১৯ ১৫:৪৯:১৪

ছবি: ইন্টারনেট

অবশেষে বিতর্কিতদের বাদ দিয়ে ছাত্রলীগের কমিটি পুনর্গঠনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সংগঠনটি। এতে উচ্ছাসিত হয়ে স্বাগত জানিয়েছে পদবঞ্চিতরা। তবে তারা জানান, বিতর্কিতদের সংখ্যা ১৭ জন নয়, আরও বেশি।

বৃহস্পতিবার (১৬ মে) দুপুরে, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মধুর ক্যান্টিনে সংবাদ সম্মেলনে একথা জানান সংগঠনটির নেতারা।

এদিকে পদবঞ্চিতরা অভিযোগ করে বলেন, তাদের দাবি যৌক্তিক ছিল বলেই কমিটি পুনর্গঠনের সিদ্ধান্ত হয়েছে। তবে ১৭ জন নয় বিতর্কিতদের সংখ্যা আরও বেশি হবে। এ সময় প্রধানমন্ত্রীকেও ধন্যবাদ জানায় তারা।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত সাবেক প্রচার সম্পাদক সাইফুদ্দিন বাবু বলেন, ‘আমরা সংগঠনের কাউকে দোষারোপ করছি না। আমরা দোষারোপ করছি কিছু ব্যক্তিকে। তাদের কারণে সংগঠনের বদনাম হোক আমরা তা চাইনা। আমরা শুধু বিতর্কিতদের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছি।’

এর আগে, বুধবার রাত ১২ টায় রাজধানীর ধানমন্ডি আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলন করেন ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় নেতারা। সেখানে শুরুতে সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী বলেন, ছাত্রলীগের ঘোষিত কমিটির ১৭ জনের বিরুদ্ধে গঠনতন্ত্রবিরোধী অভিযোগ পাওয়া গেছে।

১৭ জন হলেন, তানজীল ভুইয়া তানভীর, অরেফিন সিদ্দিকি সুজন, সুরঞ্জন ঘোষ, আতিকুর রহমান খান, বরকত হোসেন হাওলাদার, শাহরিয়ার হোসেন বিদ্যুৎ, মাহমুদুল হাসান তুষার, আমিনুল ইসলাম বুলবুল, আহসান হাবীব,সাদিক খান, তৌফিক হাসান সাগর, সোহানী হাসান তিথি, রুশি চৌধুরী, মুনমুন চৌধুরী, আফরিন লাবণী, মুনমুন নাহার বৈশাখী।

ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী বলেন, সংগঠনের ভাবমূর্তি নষ্ট করেছে এমন কাউকেই ছাড় দেয়া হবে না। অপ্রত্যাশিত আচরণের মাধ্যমে যারা ছাত্রলীগকে হেয় প্রতিপন্ন করেছে তাদের বিরুদ্ধে আমরা ব্যবস্থা নিব। আমরা ইতিমধ্যে তদন্ত কমিটি করেছি।

এ সময় বিশৃঙ্খলাকারী‌দের উদ্দেশে গোলাম রাব্বানী ব‌লেন, আমরা স্পষ্ট বলতে চাই, সারা দে‌শে সবার প্রত্যাশা পূরণ নাও হ‌তে পারে, প্রতিবা‌দের ভাষা হ‌তে হ‌বে গণতান্ত্রিক। যারা সংগঠ‌নে বিশৃঙ্খলা ক‌রে‌ছে, তাদের ছাড় দেয়া হ‌বে না। তা‌দেরও বহিষ্কার করা হ‌বে।

সাধারণ সম্পাদক রাব্বানীর বিরু‌দ্ধে মাদক সেব‌নের অ‌ভি‌যো‌গ এসেছে। এ বিষ‌য়ে তি‌নি ব‌লেন, আ‌মি ২৪ বার রক্ত দি‌য়ে‌ছি। মাদকাসক্ত হ‌লে রক্ত দি‌তে পারতাম না। আমার বিরু‌দ্ধে অপপ্রচার হ‌চ্ছে।

২৪ ঘণ্টার মধ্যে নিজেদের নির্দোষ প্রমাণ না করতে পারলে তাদের পদগুলো শূন্য ঘোষণা করে সেখানে যোগ্যদের স্থান দেয়া হবে বলে জানান ছাত্রলীগ সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন।

তিনি আরও বলেন, অছাত্র, বিবাহিত, মাদকসেবী এবং মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী নয় এমন কয়েকজনের নাম আমরা পেয়েছি। যাচাই বাছাই করে এদের অভিযোগ সত্য হলে তাদের পদ শূন্য করে যোগ্যদের স্থান দেয়া হবে। যাদের বিরু‌দ্ধে অভিযোগ এ‌সে‌ছে তা‌দেরকে যেমন ব‌হিষ্কার করা হ‌বে, যারা বিশৃঙ্খলা ক‌রেছে তাদের‌কেও ব‌হিষ্কার করা হ‌বে।

কমিটি গঠনে বিলম্ব হওয়ার কারণ হিসেবে, সদ্য সাবেক প্রেসিডেন্ট-সেক্রেটারীর অসহযোগিতার কথা জানালেন বর্তমান সভাপতি। পাশাপাশি নিজেদের বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ কেউ প্রমাণ করতে পারলে পদত্যাগের কথাও জানান তিনি।

এ বিষয়ে শোভন ব‌লেন, বান্ধ‌বী থাক‌তে পা‌রবে না, এমন‌টি ছাত্রলী‌গের কোথাও নেই। পদ চ‌লে গে‌লে জান‌তে পার‌বেন সে কে?

বিডি২৪লাইভ/এসএএস

বিডি টুয়েন্টিফোর লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: