প্রচ্ছদ / সারাবিশ্ব / বিস্তারিত

বিয়ের ছলে ১১ বছরের মেয়েকে বিক্রি করে দিল বাবা!

প্রকাশিত: ০৯:১০ পূর্বাহ্ণ, ২১ মে ২০১৯

ছবি: প্রতীকী

১১ বছরের মেয়েকে তার থেকে বয়সে তিন গুণ বড় এক ব্যক্তির সঙ্গে বিয়ের ছলে বিক্রি করে দিল মদ্যপ বাবা। তিনদিন শিশুটিকে লাগাতার ধর্ষণের পর গ্রামে ফিরিয়ে দিয়ে যায় ৩৫ বছরের লোকটি। বলে, খুব কান্নাকাটি করছিল সে।

এ ঘটনা ঘটেছে ভারতের ভোপালের বুন্দেলখণ্ডের ছাতারপুরে। মেয়েটির মা বিক্রির ব্যাপারে কিছুই জানতেন না। ঘটনাটি ১৫ মে ঘটলেও এখন সামনে এসেছে।

পুলিশকে শিশুটি জানিয়েছে, ১২ মে তার বাবা ৫০,০০০ টাকার বিনিময়ে দেবী ভাস্করের সঙ্গে মেয়েটির বিয়ে দেয়। তাকে কাছের একটি মন্দিরে নিয়ে গিয়ে শাড়ি পরিয়ে গলায় মঙ্গলসূত্র বেঁধে দিয়ে লোকটি বলে তারা বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হলেন।

এর পরের তিনদিন মেয়েটিকে লাগাতার ধর্ষণ করে দেবী ভাস্কর। মানসিক ও শারীরিকভাবে বিপর্যস্ত শিশুটি কান্না দেখে তাকে তার বাবার কাছে ফিরিয়ে দিয়ে যায় ভাস্কর। বলে, সারাদিন মেয়ে কাঁদছে। তাই তাকে ফিরিয়ে দেওয়া হচ্ছে। স্বামীর সঙ্গে গণ্ডগোল হওয়ায় কাছেই সাগর জেলায় থাকতেন মেয়েটির মা। তিনি এই খবর পেয়ে পুলিশে অভিযোগ দায়ের করেন।

তিনি পুলিশকে জানিয়েছেন, 'ওকে যখন দেখি, ও কাঁদছিল। তখনও তার গায়ে বিয়ের শাড়ি ও কপালে সিঁদুর। ওর থেকে তিন গুণ বড় একটা লোকের কাছে আমার মেয়েকে বিক্রি করে দিয়েছিল আমার স্বামী ও ননদ।' শিশুটিকে ধর্ষণের অভিযোগে ভাস্করকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

বিডি২৪লাইভ/এআইআর

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: