প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

গোসলের ভিডিও ধারণ করে গৃহবধূকে ধর্ষণ করত মিলন

২২ মে ২০১৯ , ১০:৩০:২৫

ছবি: প্রতীকী

বরিশালের উজিরপুর উপজেলায় মুঠোফোনে এক গৃহবধূর গোসলের ভিডিও ধারণ করে তা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেয়ার ভয় দেখিয়ে একাধিকবার ধর্ষণের অভিযোগে মিলন (২৫) নামে এক যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

বুধবার (২২ মে) দুপুরে উপজেলার বামরাইল ইউনিয়নের দক্ষিণ মোড়াকাঠি গ্রাম থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। বিকেলে মিলন রাঢ়িকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়। তিনি মোড়াকাঠি গ্রামের ফারুকের ছেলে।

স্থানীয়রা জানান, দক্ষিণ মোড়াকাঠি গ্রামে দিনমজুর স্বামীর সঙ্গে একটি কক্ষ ভাড়া নিয়ে বসবাস করে আসছিলেন ওই গৃহবধূ। ছয় মাস আগে ওই গৃহবধূ পুকুরে গোসল করার সময় মিলন মুঠোফোনে তার ভিডিও ধারণ করে। এরপর ওই ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছেড়ে দেয়ার ভয় দেখিয়ে একাধিকবার তাকে ধর্ষণ করে। সম্প্রতি ধর্ষণ করতে ব্যর্থ হয়ে মিলন গৃহবধূর স্বামীকে নগ্ন ভিডিও দেখায়। এতে গৃহবধূর সংসার ভাঙ্গার উপক্রম হয়।

পরবর্তীতে বিষয়টি এলাকায় জানাজানি হলে গত ১৭ মে রাতে দক্ষিণ মোড়াকাঠি ধর্ষিতা গৃহবধূর ভাড়া বাসায় বামরাইল ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি সজীব শরিফ ও ইউপি সদস্য আতিকুর রহমান রাঢ়িসহ একাধিক প্রভাবশালী বিষয়টি ধামাচাঁপা দেয়ার জন্য ওই গৃহবধূ ও তার স্বামীকে ডেকে ১০ হাজার টাকা দিয়ে থানা পুলিশসহ কাউকে না জানানোর জন্য হুমকি দেয়।

ধর্ষিতা ওই গৃহবধূর স্বামী দিনমজুর জানান, ওই দশ হাজার টাকা ফেরত দেয়ার পর স্থানীয় প্রভাবশালীদের হুমকির কারণে তাদের ভাড়া বাসা থেকে তাড়িয়ে দেয়া হয়েছে। প্রভাবশালীরা প্রতিনিয়ত হুমকি দিচ্ছে।

বামরাইল ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি সজীব শরিফ জানান, এ ধরনের কোনো ঘটনার সালিশিতে আমি ছিলাম না। আমাকে হেয় করতে মিথ্যা কথা রটানো হচ্ছে।

উজিরপুর মডেল থানা পুলিশের ওসি শিশির কুমার পাল জানান, সকালে ওই গৃহবধূ বাদী হয়ে থানায় ধর্ষণ মামলা করেছেন। দুপুরে অভিযান চালিয়ে দক্ষিণ মোড়াকাঠি গ্রাম থেকে মিলনকে গ্রেফতার করে পুলিশ। বিকেলে মিলন রাঢ়িকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

বিডি২৪লাইভ/এএস

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: