প্রচ্ছদ / রাজনীতি / বিস্তারিত

বিছানা থেকে উঠতে পারছেন না খালেদা জিয়া

প্রকাশিত: ০৭:৩১ অপরাহ্ণ, ২৫ মে ২০১৯

ছবি: ইন্টারনেট

বিএনপি চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তি ও সুচিকিৎসার দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল করেছে জাতীয়তাবাদী মহিলা দল।

আজ শনিবার (২৫ মে) সকাল সাড়ে ১০টায় জাতীয়তাবাদী মহিলা দলের নেতাকর্মীর অংশগ্রহণে নয়াপল্টনস্থ বিএনপি কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

মানববন্ধন শেষে একটি বিক্ষোভ মিছিল নয়াপল্টনস্থ বিএনপি কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে থেকে শুরু হয়ে নাইটিঙ্গেল মোড় ঘুরে আবারও নয়াপল্টন কার্যালয়ের সামনে এসে শেষ হয়। মিছিলে নেতৃত্ব দেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব এ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী।

মিছিলে মহিলা দলের নেতাকর্মীরা বেগম খালেদা জিয়ার সুচিকিৎসা ও নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে সোচ্চার কন্ঠে শ্লোগানে রাজপথ কাঁপিয়ে তোলেন।

এ সময় বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেন, সরকার প্রধানের নির্দেশেই জামিনযোগ্য মামলায় বেগম খালেদা জিয়ার জামিন আটকিয়ে রেখে মুক্তিতে বাধার সৃষ্টি করা হচ্ছে। সরকারের বাধার কারণে বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি মিলছে না। প্রধানমন্ত্রীর প্রতিহিংসার আগুনে দেশনেত্রীর জীবন এখন সংকটাপন্ন। আমরা দেশনেত্রীর অবনতিশীল শারীরিক অবস্থা নিয়ে বারবার তাঁর সুচিকিৎসা ও নিঃশর্ত মুক্তির দাবি জানালেও সরকার গায়ের জোরে সেই দাবিকে অগ্রাহ্য করছে। 

‘বেগম জিয়া বিনা চিকিৎসায় মারা যাবেন না’ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকের এই বক্তব্যের কঠোর সমালোচনা করে রিজভী আহমেদ বলেন, আসলেই আওয়ামী সরকারের ওপরেই নির্ভর করছে বেগম জিয়ার জীবন-মৃত্যু। তারা দেশনেত্রীর অসুস্থতা নিয়েও বিদ্রুপ করছেন। এরা বিনা ভোটে ক্ষমতায় থাকতে যেয়ে আকাশছোঁয়া অহংকারে ভুগছেন। অহংকারের কারণে তাদের পতন অনিবার্য হয়ে উঠেছে। 

তিনি বলেন, এসব বক্তব্য (আওয়ামী লীগের মন্ত্রীদের) অমানবিক ও মনুষ্যত্বহীন। বর্তমানে জনগণের প্রিয় নেত্রী ও চারবারের সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা এতটাই অবনতিশীল যে, তিনি বর্তমানে বিছানা থেকেও উঠতে পারছেন না।

রিজভী বলেন, সরকারের মন্ত্রীদের বক্তব্য শুনলে মনে হয়-মিডিয়ার সামনে ভিন্ন ধরনের কথা বললেও ভেতরে ভেতরে বেগম জিয়ার চিকিৎসা ও অসুস্থতা নিয়ে নিষ্ঠুর তামাশা করে যাচ্ছেন। বাস্তবে বেগম খালেদা জিয়ার সঠিক চিকিৎসা হচ্ছে না। সরকারের অবহেলায় এবং প্রতিহিংসা পূরণের ফলে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার কোন ক্ষতি হলে এর দায় সরকারকেই নিতে হবে। 

মিছিলে জাতীয়তাবাদী মহিলা দলের সিনিয়র সহ-সভাপতি নুরজাহান ইয়াসমিন, সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হেলেন জেরিন খান, মানব উন্নয়ন বিষয়ক সম্পাদক ফারহানা ইয়াসমিন আতিকা, মহিলা দল নেত্রী মুকুল আক্তার অনা, শাহজাদী কহিনুর পাঁপড়ী, এলিজা মুন্নী, শাহিদা মির্জা, মুনমুন আক্তার, নীলুফার ইয়াসমিন, শিল্পী রেজা, রুমা আক্তার, আজমেরী আজিম, তানজীম ইসলাম লিলি, মম আক্তার, মাসুদা খান লতা, নাজিয়া হক রুনা, রুখসানা মির্জা প্রমূখ নেতাকর্মী অংশ নেন।

বিডি২৪লাইভ/এমআই/এআইআর

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: