প্রচ্ছদ / রাজনীতি / বিস্তারিত

ঐক্যবদ্ধ আন্দোলনের মাধ্যমে সরকারের পতন হবে

প্রকাশিত: ১১:১২ অপরাহ্ণ, ২৫ মে ২০১৯

ছবি: নিজস্ব

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, আজকে অত্যন্ত আনন্দের কথা বাংলাদেশে যারা গণতন্ত্রকে ভালবাসেন, যারা মানুষের অধিকারকে ফিরে পেতে চান তারা আজকে ঐক্যবদ্ধ হচ্ছে।

শনিবার (২৫ মে) সন্ধ্যায় সুপ্রিম কোর্ট বার অডিটোরিয়ামে আলোচনা সভা ও ইফতার মাহফিলে তিনি এ সব কথা বলেন।

মির্জা ফখরুল বলেন, আর ঐক্যবদ্ধ হয়ে, ঐক্যবদ্ধ আন্দোলনের মাধ্যমে এই স্বৈরাচারী সরকারকে পরাজিত করতে হবে। দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে হবে। গণতন্ত্রকে মুক্ত করতে হবে।

মির্জা ফখরুল আরও বলেন, বাংলাদেশে আজকে যারা জোরকরে ক্ষমতায় বসে আছে তারা জনগণের প্রতিনিধিত্ব করে না। তারা গায়ের জোরে ক্ষমতা দখল করে আছে। আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসার পরে পরিকল্পিতভাবে বাংলাদেশের সংবিধানকে তছনছ করে দিয়েছে। মানুষের সমস্ত মৌলিক অধিকার গুলোকে ছিনিয়ে নিয়েছে। গণতন্ত্রের প্রতিষ্ঠানগুলোকে ভেঙে তছনছ করে দিয়েছে।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, গণতন্ত্রের নেতা, যিনি গণতন্ত্রের জন্য বারবার সংগ্রাম করেছেন, কারাবরণ করেছেন দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া। যাকে বাংলাদেশের মানুষ গণতান্ত্রিক গণতন্ত্রের মাতা বলে অভিষিক্ত করেছেন। সেই দেশনেত্রীকে দীর্ঘদিন ধকে কারারুদ্ধ করে রেখেছে একটি মাত্র কারণে, যে তারা জানে খালেদা জিয়া যদি বাহিরে থাকেন তাহলে তাদের সমস্ত ষড়যন্ত্র বানচাল হয়ে যাবে। খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে জনগণ ঐক্যবদ্ধ আন্দোলনের মাধ্যমে তারা পালিয়ে যেতে বাধ্য হবে। এজন্য তাকে কারারুদ্ধ করা হয়েছে।

তিনি বলেন, বাংলাদেশের কোন বিচ্ছিন্ন দেশ নয়। বাংলাদেশ এই পৃথিবীর মধ্যে একটি দেশ। আজকের সমস্ত পৃথিবী জুড়ে রাজনীতিতে পরিবর্তন হচ্ছে। এখন সামনে কি করতে হবে সে কারণ আমাদেরকে নির্ধারণ করতে হবে।

আলোচনা সভা ও ইফতার মাহফিলে আরও উপস্থিত ছিলেন, জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতা ও গণফোরামের সভাপতি ড. কামাল হোসেন, গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী, নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না, বিপ্লবী ওয়াকার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক কমরেড সাইফুল হক, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের প্রধান ড. আসিফ নজরুল বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আব্দুস সালাম, গণফোরামের ১ নম্বর সদস্য মস্তফা মহসীন মন্টু, গণফোরামের নির্বাহী সভাপতি সুব্রত চৌধুরী প্রমুখ।

বিডি২৪লাইভ/এমই/এআইআর

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: