প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে লাচ্ছা সেমাই তৈরি করায় জরিমানা

২৭ মে ২০১৯ , ০৬:৪৩:০০

ছবি: প্রতিনিধি

ঈদুল ফিতরের লোভনীয় খাদ্য সামগ্রীর মধ্যে লাচ্ছা সেমাই অন্যতম। আর সেটা যদি হয় নামীদামি কোম্পানীর তবে সেটা ঈদের রসনাবিলাসে অনন্য মাত্রা যোগ করে। তেমনি একটি সেমাই হচ্ছে বগুড়ার শেরপুরের পেন্টাগন এর লাচ্ছা সেমাই। যা শুধু উত্তরবঙ্গেই নয় সারা দেশেই সমাদৃত। আর সেই পেন্টাগণ এর লাচ্ছা সেমাই তৈরি হচ্ছে সিরাজগঞ্জ সদরের বহুলী ইউনিয়নের ব্রাক্ষণগাতী গ্রামে নোংরা ও অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে।

সেখানে নেই কোন মান নিয়ন্ত্রণের ব্যবস্থা, নেই শ্রমিকদের কোন স্বাস্থ্য সনদ, তারা ব্যবহার করছে নোংরা কাপড় চোপড়, তাদের হাতে বা মাথা কোন আবরণ দিয়ে আবৃত নয়। অত্যন্ত খোলা মেলা পরিবেশে গোয়াল ঘরের পাশেই লাচ্ছা সেমাই তৈরি করে তার উপর ঘিয়ের ফ্লেভার স্প্রে করে পেন্টাগণের লাচ্ছা সেমাই প্যাকেট হচ্ছে। যেখানে ৫০০ গ্রাম সাধারণ লাচ্ছা সেমাই এর দাম ৫০ টাকা কিন্তু পেন্টাগন সেমাই এর ৫০০ গ্রাম এর প্যাকেট এর দাম ২২০ টাকা।

এভাবেই ভোক্তা সাধারণ প্রতি ৫০০ গ্রামে ১৭০ টাকা করে ঠকছে। পেন্টাগণের লাচ্ছা সেমাইয়ের এমন চিত্র উঠে আসে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানে। সিরাজগঞ্জ সদরের বহুলী ইউনিয়নের ব্রাক্ষণগাতী গ্রামে বাচ্চু এর লাচ্ছা সেমাই ফ্যাক্টরিকে ৬০ হাজার টাকা জরিমানা ও ২০ কেজি ভক্ষণ অযোগ্য সেমাই জব্দ করে ধবংস করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

সোমবার (২৭ মে) দুপুরে এই দন্ডাদেশ দিয়েছেন সদরের সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ আনিসুর রহমান।

ভ্রাম্যমাণ আদালতের পেশকার মিলন সরকার জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সিরাজগঞ্জ সদরের বহুলী ইউনিয়নের ব্রাক্ষণগাতী এলাকায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান পরিচালিত হয়। এ সময় নোংরা ও অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে পেন্টাগন এর লাচ্ছা সেমাই উৎপাদন দেখতে পান আদালত। নোংরা ও অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে লাচ্ছা সেমাই তৈরী,পরিবেশের ছাড়পত্র না থাকা, কর্মচারীদের স্বাস্থ্য সনদ না থাকা, ফায়ার সার্ভিসের ছাড়পত্র না থাকা, কলখানা প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদপ্তরের সনদপত্র না থাকা, ট্রেড মার্ক লাইসেন্স না থাকা,ট্রেড লাইসেন্স এর সনদ না থাকার এবং কোন প্রকারের মান নিয়ন্ত্রণ ছাড়া নামীদামী কোম্পানীর পেন্টাগন সেমাই প্যাকেট করার অপরাধে লাচ্ছা সেমাই ফ্যাক্টরির মালিক বাচ্চু শেখ এর নামে মামলা দিয়ে ৬০ হাজার টাকা জরিমানা তাৎক্ষণিক আদায় করেন এবং ২০ কেজি ভক্ষণ অযোগ্য লাচ্ছা সেমাই জব্দ করে জনসম্মুখে ধবংস করেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন, ২০০৯ এর আওতায় এ দন্ডাদেশ দিয়েছেন আদালত। উক্ত অভিযানে সহযোগিতা করেন পেশকার মিলন সরকার ও আনসার ব্যাটালিয়নের সদস্যবৃন্দ।

বিডি২৪লাইভ/এজে

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: