ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৮

সম্পাদনা: মামুন কবীর

ডেস্ক কন্ট্রিবিউটর, বিডি২৪লাইভ

লিঙ্কে ক্লিক করতেই মোমোর বীভৎস ছবি, এরপর...

৩০ আগস্ট, ২০১৮ ১২:২১:৩০

ব্লু হোয়েল এর পর এবার মোমো গেম এর আতঙ্ক। অনলাইন সোশ্যাল গেইম মোমো খেলে এবার অসুস্থ হয়ে পড়ল দ্বাদশ শ্রেণির এক শিক্ষার্থী। ওই কলেজ শিক্ষার্থী বর্তমানে হাসপাতালে ভর্তি। ভারতের মেদিনীপুরের গোয়ালতোড়ের কদমা গ্রামের কলেজ পড়ুয়া ছাত্রটির নাম নন্দী।

ছেলেটির বাবার দাবি, তাঁর ছেলে মোমো গেম খেলে অসুস্থ হয়ে পড়েছে। গত ৪ দিন ধরে ছেলের আচরণেও পরিবর্তন লক্ষ করেন তিনি।

কলেজ ছাত্র নন্দী ভাষ্যমতে, তার কাছে মোমোর লিঙ্ক আসে, আর সেই লিঙ্কে ক্লিক করতেই মোমোর বীভৎস ছবি উঠে আসে। তার পর থেকেই তার মাথা ঘোরাতে শুরু করে, শরীর খারাপ হয়ে পড়ে। খেলার আর সুযোগ হয়নি৷

খবর পেয়ে গোয়ালতোড় থানার পুলিশ শুভদীপের বাড়িতে যায়, তাকে কাউন্সিলিং করে। পরে মোবাইল ফোনটি খতিয়ে দেখার জন্য থানায় নিয়ে যায় পুলিশ।

বুধবার (২৯ আগস্ট) দুপুরে বাড়ির লোক প্রথমে গড়বেতার কেওয়াকল হাসপাতালে নিয়ে যায়। পরে সেখান থেকে তাকে মেদিনীপুর মেডিক্যাল কলেজে পাঠানো হয়।

চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, মানসিক ভাবে খানিকটা বিপর্যস্ত শুভদীপ। তবে চিকিৎসার পরে তার পরিস্থিতি স্থিতিশীল৷

উল্লেখ্য, গত এক সপ্তাহ আগে পশ্চিম মেদিনীপুরের দাসপুরে এক যুবক মোমো গেমের খপ্পরে পড়েছিল৷ সেই নিজেই গেম খেলার সময়ে ফেসবুকে সেই খেলার আপডেট দিতেই পরিবার ও প্রতিবেশীরা জানতে পেরে যায়৷ তার পর থেকে
পরিবার ও পুলিশের সহযোগিতায় রক্ষা পায় সে৷

এর আগে ব্লু হোয়েল নামে একটি অনলাইন সোশ্যাল গেইম ব্যাপক আলোড়ন সৃষ্টি করে। ব্লু হোয়েল চ্যালেঞ্জ নামেও পরিচিত। নীল তিমি বা ব্লু হোয়েল একবিংশ শতকের অনলাইন গেমগুলির মধ্যে একটি হিসাবে দাবীকৃত।

সোশ্যাল গেমিং পাতার প্রশাসকের নির্দেশ মোতাবেক ৫০ (পঞ্চাশ) দিন ধরে বিভিন্ন কাজ করতে হয় এবং সর্বশেষ চ্যালেঞ্জ হিসেবে অংশগ্রহণকারীকে আত্মহত্যা করার নির্দেশ দেয়া হয়। বিশ্বে এখনও পর্যন্ত ব্লু হোয়েল খেলতে গিয়ে ১৩৩ জনেরও বেশি কিশোর-কিশোরীর মৃত্যু হয়েছে বলে দাবি করা হয়।

বিডি২৪লাইভ/এমকে

সর্বশেষ

এডিটর ইন চিফ: আমিরুল ইসলাম আসাদ
বিডি২৪লাইভ মিডিয়া (প্রাঃ) লিঃ,
বাড়ি # ৩৫/১০, রোড # ১১, শেখেরটেক, মোহাম্মদপুর, ঢাকা - ১২০৭
ই-মেইলঃ info@bd24live.com

বার্তা প্রধান: ০৯৬১১৬৭৭১৯০
নিউজ রুম: ০৯৬১১৬৭৭১৯১
মফস্বল ডেস্ক: ০১৫৫২৫৯২৫০২
ই: office.bd24live@gmail.com

Site Developed & Maintaned by: Primex Systems