ঢাকা, সোমবার, ২০ মে, ২০১৯

অসহায় আশামণির নিষ্ঠুর বাবা-মা!

২৫ এপ্রিল, ২০১৯ ০০:১০:০০

জন্মদাতা বাবার হাতে নির্মম নির্যাতনের শিকার হয়েছে আশামণি নামে এক শিশু। আলোচিত শিশু আশামণির ঘটনাটি এখন কুড়িগ্রামের সবার মুখে মুখে। বিষয়টি নিয়ে সমালোচনা করছেন সবাই।

খবর পেয়ে শিশুটিকে দেখতে যান জেলা প্রশাসক সুলতানা পারভীন। শিশু আশামণির খোঁজখবর নিতে কুড়িগ্রামের উলিপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে যান তিনি।

এ ব্যাপারে জেলা প্রশাসক সুলতানা পারভীন বলেন, এরকম নির্দয় বাবা-মা হতে পারে, তা আশামনির শরীরে নির্যাতনের চিহ্ন দেখে বুঝতে পারলাম। আশামনির মতো একটি ফুটফুটে শিশুকে দেখলে যে কারও মায়া লাগার কথা। জেলা প্রশাসন আশামনির চিকিৎসাসহ অন্যান্য বিষয় দেখভাল করবে। একই সঙ্গে আশামনির নিরাপদ ভবিষ্যতের কথা চিন্তা করে আইনি প্রক্রিয়ার মাধ্যমে নতুন অভিভাবকের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

উলিপুর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোয়াজ্জেম হোসেন বলেন, খবর পেয়ে শিশুটিকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। শিশুটিকে নির্মমভাবে নির্যাতন করায় তার বাবাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এ ঘটনায় শিশুটির মা ফাতেমা বেগমের চাচা বাদী হয়ে মামলা করেন। শিশুটির বাবা আশরাফুলকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

এদিকে নির্যাতনের ঘটনায় বাবা আশরাফুল আলমের বিরুদ্ধে শিশুটির পালিত বাবা ইদ্রিস আলী উলিপুর থানায় মামলা করেছেন। পরে আশরাফুল আলমকে গ্রেফতার করে বুধবার (২৪ এপ্রিল) আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠায় পুলিশ।


ইদ্রিস আলী বলেন, শিশুটিকে তার বাবা-মা ৪০ দিন বয়সে আমার স্ত্রীর কাছে রেখে ঢাকায় পোশাক কারখানায় কাজে যান। টানা সাড়ে তিন বছর শিশুটিকে লালন-পালন করেছি আমরা। ছয় মাস আগে বাড়িতে ফিরে এসে শিশুটিকে নিয়ে যান তার বাবা-মা। কিন্তু শিশুটি আমাদের বাবা-মা হিসেবে জানতো এবং ডাকতো। প্রকৃত বাবা-মায়ের কাছে গেলেও তাদের বাবা-মা বলে ডাকতো না। আমাদের কাছে আসার জন্য কান্না করতো শিশুটি। ফলে শিশুটির ওপর নির্মম নির্যাতন শুরু করে বাবা-মা। খাবার না দিয়ে কখনো হাত-পা বেঁধে পেটানো হতো। হাত বেঁধে পুকুরের পানিতে দাঁড় করে রাখা হতো। এমনকি মাটিতে গর্ত করেও রাখা হতো। সোমবারের নির্যাতনে শিশুটি জ্ঞান হারালে উলিপুর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

উলিপুর উপজেলা স্বাস্থ্য ও প.প কর্মকর্তা সুভাষ চন্দ্র সরকার বলেন, শিশুটির পুরো শরীরে নির্যাতনের চিহ্ন রয়েছে। শিশুটি মানসিকভাবে ট্রমায় ভুগছে। বুধবার জেলা প্রশাসক পরিদর্শন করে তার উন্নত চিকিৎসার জন্য কুড়িগ্রাম সদর হাসপাতালে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন। বৃহস্পতিবার তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য কুড়িগ্রাম হাসপাতালে পাঠানো হবে।

বিডি২৪লাইভ/এইচকে

সর্বশেষ

এডিটর ইন চিফ: আমিরুল ইসলাম আসাদ
বিডি২৪লাইভ মিডিয়া (প্রাঃ) লিঃ, বাড়ি # ৩৫/১০, রোড # ১১, শেখেরটেক, মোহাম্মদপুর, ঢাকা - ১২০৭, 
ই-মেইলঃ info@bd24live.com, 
ফোন: ০২-৫৮১৫৭৭৪৪

বার্তা প্রধান: ০৯৬১১৬৭৭১৯০
নিউজ রুম: ০৯৬১১৬৭৭১৯১
মফস্বল ডেস্ক: ০১৫৫২৫৯২৫০২
ই: office.bd24live@gmail.com

Site Developed & Maintaned by: Primex Systems