প্রচ্ছদ / বিনোদন / বিস্তারিত

পতিতা পল্লীর প্রতারণার শিকার মৌসুমী!

   
প্রকাশিত: ১০:৩১ পূর্বাহ্ণ, ১০ ডিসেম্বর ২০১৯

বাংলাদেশের দক্ষিণাঞ্চলের খুলনা, বাগের হাট এবং মংলা বন্দরের বানিয়াশানতা পতিতা পল্লিতে চিত্রায়িত হয়েছে আরাফাত রহমান পরিচালিত স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র ‘শেষ দেখা’। দুই ডাইমেনশনের এই গল্পে মুখ্য চরিত্রে অভিনয় করেছেন বাপ্পি রাজ ও মৌসুমী হামিদ (Moushumi Hamid)। রাজধানী থেকে বহুদূরে গড়ে ওঠা একটি অসম প্রেম কাহিনি। একটা পুরোপুরি প্রেমের গল্প। ধোপার ছেলে ও কাজের মেয়ে প্রেমে জড়িয়ে যাওয়ার গল্প। অতঃপর নানা ঘটনা-দুর্ঘটনা। এই গল্পে তুলে ধরা হয়েছে মংলা বন্দরের বানিয়াশানতা পতিতা পল্লিতে ঘটে যাওয়া প্রতারণা আর বাস্তবতার নিয়মিত চিত্র।

ইতোমধ্যে ধ্রুব টিভি’র ইউটিউব চ্যানেলে এই স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রটির প্রমো রিলিজ রিলিজ করা হয়েছে। দর্শকদের হৃদয় স্পর্শ করেছে এর প্রমো। অন্তত মন্তব্য বাক্স দেখে তেমনটাই বোঝা যাচ্ছে। অভিনেতা বাপ্পিরাজ বলেন, ‘দক্ষিণাঞ্চলের বিভিন্ন এলাকায় ঘুরে আমরা শুটিং করেছি। মংলার শুটিং করাটা বেশ কষ্টসাধ্য ছিল। মংলা বন্দরের বানিয়াশানতা পতিতা পল্লিতে গল্পটির চিত্রায়ণ করা হয়েছে। এখানকার নিয়মিত ঘটে যাওয়া প্রতারণা এবং বাস্তবতা’ই এই সিনেমার কেন্দ্রবিন্দু। মৌসুমী হামিদ সহ-শিল্পী হিসেবে বেশ সহযোগিতা করেছেন। এটা মুক্তি পাওয়ার পর আসলে বোঝা যাবে আমাদের কাজ কতটা সার্থক হয়েছে।’ আগামীকাল ১১ ডিসেম্বর ‘শেষ দেখা’ অবমুক্ত করা হবে ধ্রুব টিভির ইউটিউব চ্যানেলে। স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রটির সহযোগী নির্মাণে ছিলেন বাপ্পি রাজ।

আরএএস/সাএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: