ফাইনালে নিউজিল্যান্ডের প্রতিপক্ষ ইংল্যান্ড

১১ জুলাই ২০১৯, ১০:১৭:৪০

প্রথম সেমিফাইনালে নিউজিল্যান্ডের কাছে হেরে বিশ্বকাপ থেকে ছিটকে যায় ক্রিকেট পরাশক্তি ভারত আর আজ বৃহস্পতিবার (১১ জুলাই) দ্বিতীয় সেমিফাইনালে ইংল্যান্ডের কাছে হেরে বিশ্বকাপের বিদায় ঘণ্টা বেজে যায় অস্ট্রেলিয়ার।

টসে জিতে ব্যাট করতে নেমে ইংল্যান্ডের বোলিং তোপে সবকটি উইকেট হারিয়ে ২২৩ রান করে অজিরা। ইংলিশরা এই ছোট লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে নির্ধারিত ৫০ ওভারের আগেই ৩২.১ ওভারে ৮ উইকেটে জিতে দ্বিতীয় দল হিসাবে ফাইনাল নিশ্চিত করে।

ব্যাট করতে নেমে শুরুটা শুভ সূচনা করে ইংলিশ দুই ওপেনার জেসন রয় ও জনি বেয়ারস্টো। যেখানে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে দলীয় ১৪ রানে তিন টপ অর্ডার হারিয়ে বসে অস্ট্রেলিয়া সেই মাঠেই দ্বিতীয় ইনিংসে ইংলিশ দুই ওপেনার করেন ১২৪ রানের জুটি। শুরু থেকে জনি বেয়ারস্টো ধীরগতিতে খেললেও আক্রমণাত্মক খেলতে থাকেন জেসন রয়। তবে অজি পেসার প্যাট কামিন্সের শিকার হন রয়। এর আগে ৬৫ বল খেলে ৮৫ করে রয় ফিরে গেলে তখন জয়ের খুব কাছাকাছি চলে যায় ইংলিশরা। এর কিছু পরে ৪৩ বলে ৩৪ রান করে এলবিডব্লিউর ফাঁদে পরে প্যাভিলিয়নে ফিরে যায় জনি বেয়ারস্টো। পরে জো রুটের ৪৯ রান ও অধিনায়ক এউইন মরগ্যানের ৪৫ রানের ঝড়ো ব্যাটিং নৈপুণ্যে জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় ইংল্যান্ড।

এর আগে টস হেরে আগে বোলিং পায় ইংল্যান্ড। তবে শুরুটা তাদের হয় দুর্দান্ত। শুরুর ১৪ রানে তুলে নেয় চ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়ার তিন উইকেট। সেই চাপ সামাল দেন অ্যালেক্স কেরি ও স্টিভ স্মিথ। এরপরই জোড়া আঘাত হানেন আদিল রশিদ। পরে সেট হয়ে ফেরেন ম্যাক্সওয়েল।

অস্ট্রেলিয়া ৩৮ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে ১৬৮ রান তুলেছে। অ্যারন ফিঞ্চ গোল্ডেন ডাক মেরে ফেরেন। ডেভিড ওয়ার্নার আউট হন ৯ রানে। উসমান খাজার ইনজুরিতে একাদশে ঢোকা পিটার হ্যান্ডসকম্ব ফেরেন ৪ রান করে। এপপর অ্যালেক্স কেরি ৪৬ রান করে আউট হন। তিনি স্মিথের সঙ্গে গড়েন ১০৩ রানের জুটি। একই ওভারে ডাক মেরে ফেরেন স্টইনিস। দলকে ভরসা দেওয়া গ্লেন ম্যাক্সওয়েল ২২ রান করেন। দলের বিপদে স্টিভ স্মিথ ৬৭ রান করে খেলছেন।

এজবাস্টনের মাঠ ছোট। শুরুতে ব্যাটিং সহায়ক হয়। পরে উইকেট স্লো হতে থাকে। অস্ট্রেলিয়া অধিনায়ক টস জিতে সুবিধাই পান। তবে সুবিধা নিতে পারেনি তারা। ইংল্যান্ড অধিনায়ক ইয়ন মরগানও টস নিয়ে ভাবছেন না বলে জানান। বিশ্বকাপে রান তাড়া করে খেলতে ভালোই লাগছে বলে জানান মরগান।

অস্ট্রেলিয়া দলে এ ম্যাচে এক পরিবর্তন। ইনজুরির কারণে দল থেকে ছিটকে গেছেন উসমান খাজা। তার বদলে দলে ঢুকেছেন পিটার হ্যান্ডসকম্ব। তিনি চারে ব্যাটিং করবেন। স্টিভ স্মিথ এ ম্যাচে তিনে ব্যাটিং করবেন বলে উল্লেখ করেন ফিঞ্চ। এছাড়া তাদের দলে আছেন স্পিনার নাথান লায়ন। ইংল্যান্ড পাঁচ পেসার এক স্পিনার নিয়ে খেলছে। তাদের স্পিন আক্রমণে আছেন আদিল রশিদ। অজিরা খেলছেন চার পেসার নিয়ে।

সংক্ষিপ্ত স্কোর
ইংল্যান্ড: ২২৬/২ ( ৩২.১ ওভার)
টার্গেট: ২২৪
অস্ট্রেলিয়া: ২২৩/১০ (৪৯ ওভার)

ইংল্যান্ড একাদশ: জেসন রয়, জনি বেয়ারস্টো, জো রুট, এউইন মরগ্যান, বেন স্টোকস, জস বাটলার, ক্রিস ওকস, মার্ক উড, জোফরা আর্চার, লিয়াম প্লাঙ্কেট, আদিল রশিদ।

অস্ট্রেলিয়া একাদশ: অ্যারন ফিঞ্চ, ডেভিড ওয়ার্নার, স্টিভ স্মিথ, পিটার হ্যান্ডসকম্ব, মার্কোস স্টইনিস, গ্লেন ম্যাক্সওয়েল, অ্যালেক্স ক্যারে, প্যাট কামিন্স, মিচেল স্টার্ক, জেসন বেহরেনডর্ফ, নাথান লিওন।

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।