নবীগঞ্জে ১৬ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা

১৬ জুলাই ২০১৯, ৭:১৪:৩৪

বন্যার কারণে নবীগঞ্জ উপজেলার ১৬টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে বন্যা আশ্রয় কেন্দ্রসহ দুটি উচ্চ বিদ্যালয় ১১টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও ৩টি মাদ্রাসা বন্ধ রাখা হয়েছে। বন্যার পানিতে তলিয়ে যাওয়ার কারণে পাঠ গ্রহণে আসছে না শিক্ষার্থীরা।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, বন্যার্তদের আশ্রয় কেন্দ্র ইনাতগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয়, মতিউর রহমান উচ্চ বিদ্যালয় ও এ ছাড়া উপজেলার পারকুল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, বাজে সোনাইত্যা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, মোস্তাফাপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, দিঘলবাক সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, রাধাপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, দৌলতপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, কসবা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, ইনাতগঞ্জ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়,রোসন পুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, মুকিমপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, দুর্গাপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, ইনাতগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয় এবং কসবা দাখিল মাদ্রসা, মুকিমপুর সিনিয়র দাখিল মাদ্রাসা, মোস্তফাপুর সিনিয়র দাখিল মাদ্রাসা, প্লাবিত হওয়ায় পাঠদান কার্যক্রম বন্ধ হয়ে পড়েছে।

ইনাতগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বদরুল আলম ইলাক জানান, তাদের প্রতিষ্ঠানে বন্যা আশ্রয় কেন্দ্র খোলা হয়েছিল। কিন্তু বিদ্যালয় প্রাঙ্গণসহ রাস্তাঘাট ডুবে যাওয়ায় আশ্রয় কেন্দ্রটি এখান থেকে সরিয়ে নেয়া হয়েছে। ক্লাশ নিতে আসছে না শিক্ষার্থীরা। তাই বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

নবীগঞ্জ উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা কাজী সাইফুল ইসলাম বলেন, ১১টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় বন্যার পানির জন্য বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। আরও বন্ধ হওয়ার সম্ভাবনা আছে।

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।