হুইল চেয়ারে বসে চিরুনি অভিযানে মেয়র আতিকুল

২০ আগস্ট ২০১৯, ৪:২৩:২২

রাজধানী ঢাকায় আট দিন পর ডেঙ্গু ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি রোগীর সংখ্যা বেড়েছে। তবে ঢাকার বাইরে নতুন ভর্তি সংখ্যা কমেছে। আগের দিনের তুলনায় ঢাকায় গেল ২৪ ঘণ্টায় তিন শতাংশ ডেঙ্গুতে আক্রান্ত ভর্তি রোগী বৃদ্ধি পেয়েছে। অপরদিকে ঢাকার বাইরে আগের দিনের তুলনায় গেল ২৪ ঘণ্টায় ১২ শতাংশ ডেঙ্গুতে আক্রান্ত ভর্তি রোগী কমেছে।

এদিকে, ডেঙ্গু মোকাবিলায় ২০ দিনের বিশেষ চিরুনি অভিযান শুরু করেছে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি)।

আজ নমঙ্গলবার (২০ আগস্ট) সকাল থেকেই রাজধানীর অভিজাত এলাকা গুলশান-১ থেকে এ কার্যক্রমের শুরু হয়।

তবে গুলশানের ডা. ফজলে রাব্বী পার্কে অভিযানের উদ্বোধনে ডিএনসিসি মেয়র মো. আতিকুল ইসলামকে দেখা গেল হুইল চেয়ারে। অনুষ্ঠান স্থলে এসে স্ক্র্যাচে ভর দিয়ে দাঁড়িয়ে চিরুনি অভিযানের উদ্বোধন করেন মেয়র।

উদ্বোধন শেষে এডিস মশার লার্ভার ধ্বংসের অভিযানে অংশ নেন মেয়র আতিকুল। হুইল চেয়ারে বসেই ঢুকে পড়েন ফজলে রাব্বী পার্কের পাশেই ১/এ নম্বর ৭ তলা বাড়িতে। প্রথমে হুইল চেয়ার পরে স্ক্র্যাচে ভর করে লিফটে উঠে যান ৭ তলায়। সেখানে সন্ধান পান ফেলে রাখা পরিত্যক্ত কমডে এডিস মশার লার্ভা।

এসময় কেন মেয়র হুইল চেয়ারে বসে অভিযানে এমন প্রশ্নে মেয়র আতিকুল ইসলাম বলেন, সোমবার (২০ আগস্ট) ডিএনসিসির মহাখালী এলাকায় ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হয়। সে সময় ডেঙ্গু ও চিকুনগুনিয়া রোগের বাহক এডিস মশার লার্ভা পাওয়ায় পারটেক্স গ্রুপকে দুই লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। আর সেই অভিযানে গিয়েই পা মচকে যায়। ডাক্তার বলেছেন পুরো রেস্টে থাকতে, কিন্তু আমি তো বসে থাকতে পারি না। তাই হুইল চেয়ারে বসেই এডিস মশার লার্ভা ধ্বংসের অভিযানে এসেছি। বলেন, মেয়র আতিকুল ইসলাম।

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের পুরনো ৩৬টি ওয়ার্ড দশটি ভাগে ভাগ করে প্রতি ভাগে দশটি টিম কাজ করে। প্রথম ধাপে বসতবাড়ির ভেতর ও এর আশেপাশে এডিস মশার লার্ভা পাওয়া গেলে এসব বাড়ি চিহ্নিত করে সতর্ক করা হবে। তবে, পরের ধাপে অর্থাৎ শেষ দশ দিনে একই জায়গায় লার্ভা পাওয়া গেলে জরিমানা করা হবে বলে জানান মেয়র আতিকুল।

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।