আশ্রয়কেন্দ্রের দিকে ছুটছে মানুষ

৯ নভেম্বর ২০১৯, ১২:০৫:০৫

ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের প্রভাবে উপকূলবর্তী সব জেলায় সাত নম্বর বিপদ সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে। এতে করে আতঙ্কিত হয়ে পড়েছে দ্বীপ জেলা ভোলার মানুষ। বিশেষ করে ভোলার বিচ্ছিন্ন চরগুলোর বাসিন্দারা রয়েছে চরম আতঙ্কের মধ্যে। এরই মধ্যে শুক্রবার (৮ নভেম্বর) রাত জেগে ওই সব চরাঞ্চলের মানুষকে আশ্রয় কেন্দ্রের আনার জন্য প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছে রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি ও সিপিপি সদস্যরা। ধীরে ধীরে আশ্রয়কেন্দ্রের দিকে মানুষের যাত্র বাড়ছে।

অন্য দিকে, ঘূর্ণিঝড় বুলবুল মোকাবেলায় খুলনা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ব্যাপক প্রস্তুতি গ্রহণ করা হয়েছে। খোলা রাখা হয়েছে আশ্রয় কেন্দ্র। প্রস্তুত রাখা হয়েছে স্কাউট, গার্লস গাইডসহ স্বেচ্ছাসেবক বাহিনীর সদস্যদের। পরবর্তী নির্দেশনা না দেয়া পর্যন্ত বাতিল করা হয়েছে সকল দপ্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ছুটি। এখানেও আশ্রয়কেন্দ্রে নেয়া হচ্ছে মানুষদের।

শুক্রবার (৮ নভেম্বর) এক জরুরী সভায় দুর্যোগ মোকাবেলায় এ সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়। সভায় ঝুঁকিপূর্ণ বেড়িবাঁধ ও আশ্রয় কেন্দ্রের যাতায়াতের রাস্তা দ্রুত সংস্কারের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়। সবাইকে প্রস্তুত থাকার জন্য এলাকার মসজিদে মসজিদে মাইকিং করা হয়েছে। মজুদ রাখা হয়েছে শুকনো খাবার।

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।