পুরো জেলাকেই হোম কোয়ারেন্টিন বানিয়েছেন তিন হাজার প্রবাসী!

২৭ মার্চ ২০২০, ১২:৫২:০১

পাবনায় প্রায় চার হাজারের মতো বিদেশ থেকে ফিরে এসেছেন। তার মধ্যে মাত্র ছয়শ’ ৮৮ জন হোম কোয়ারেন্টিনে আছেন। বাকি বিদেশফেরতরা কোথায় আছেন কেউ জানেন না। এ নিয়ে স্থানীয়দের মধ্যে এক ধরনের আতঙ্ক বিরাজ করছে। এদিকে গেল ২৪ ঘণ্টায় ৫৭ ব্যক্তিকে হোম কোয়ারেন্টিনে পাঠানো হয়েছে। পাবনা জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন এক রোগীকে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত সন্দেহে কোয়ারেন্টিনে থাকার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। ওই রোগীকে চিকিৎসাসেবা দেয়া হাসপাতালের চিকিৎসক ও নার্সসহ আরও নয়জনকে হোম কোয়ারেন্টিনে থাকার পরামর্শ দিয়েছেন জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ।

পাবনার সিভিল সার্জন ডা. মেহেদী হাসান ইকবাল বিষয়টি গণমাধ্যম কর্মীদের নিশ্চিত করেছেন। অন্যদিকে করোনা আতঙ্কে পাবনা জেনারেল হাসপাতাল ছেড়ে সাধারণ অনেক রোগী চলে গেছেন। শুধু গুরুতর অসুস্থ রোগী ছাড়া অন্য কোনও রোগী বর্তমানে হাসপাতালে নেই। তবে এখনও কোন রোগীকে হাসপাতালের করোনা আইসোলেশন ওয়ার্ডে ভর্তি করতে হয়নি।

পাবনায় বিদেশফেরত তিন হাজারের বেশি মানুষ কোথায় আছেন তা কেউ জানে না। এদের বাড়িতে পুলিশ হানা দিয়েও না পেয়ে ফিরে এসেছেন। পাবনায় এখন পর্যন্ত কোনও করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয়নি। একজনকে করোনা সন্দেহে পরীক্ষার জন্য ঢাকায় পাঠানো হয়েছিলো। তার নেগেটিভ ফলাফল এসেছে।

এদিকে সকালে পাবনার জেলা প্রশাসক কবীর মাহমুদ ও পুলিশ সুপার শেখ রফিকুল ইসলামের নেতৃত্বে প্রশাসনের কর্মকর্তারা করোনা থেকে রক্ষায় জনসচেতনতামূলক কার্যক্রম পরিচালনা করেছেন। কর্মকর্তারা শহরের প্রধান সড়ক আব্দুল হামিদ রোড, বড়বাজার, নিউমার্কেট, রূপকথা রোডসহ জনসমাগম প্রবণ এলাকাগুলোতে লিফলেট বিতরণ জনসাধারণকে পরামর্শ দেন।

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।