বঙ্গবন্ধু হত্যার বিচার নিয়ে কটুক্তি, ইবি ছাত্রীর বহিস্কার দাবি

৭ এপ্রিল ২০২০, ৭:১৯:৫৭

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হত্যার বিচারকে ‘পুরাতন কাসুন্দি ঘাটা’র সঙ্গে তুলনা করায় ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) এক ছাত্রীর বহিষ্কারের দাবি জানিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। কমল ছন্দ নামের ওই ছাত্রী বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের মাস্টার্সের শিক্ষার্থী। মঙ্গলবার (৭ এপ্রলি) বঙ্গবন্ধুর পালতাক খুনি মাজেদকে গ্রেফতারের পর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকের একটি পোস্টে ওই ছাত্রী এ মন্তব্য করেন।

জানা যায়, বঙ্গবন্ধু হত্যার আত্মস্বীকৃত খুনি মাজেদকে ঢাকা থেকে গ্রেফতারের পর বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সাবেক কর্মী ও বাংলা বিভাগের প্রাক্তন শিক্ষার্থী সাজ্জাদ হোসেন তার ফেসবুকের একটি পোস্ট করেন। ওই পোস্টের কমেন্টে কমল ছন্দ নামের এক শিক্ষার্থী লেখেন ‘শেখ মুজিব যদি খুন না হত তাহলে কি সে এখনো পর্যন্ত বেচে থাকতো? মুজিবর রহমান অনেক বয়স পরই মারা গেছেন। কিন্তু আমরা আদিখ্যেতা জাতি একজনের খুনের বিচার করতে করতে ভুলেই যাই প্রতিদিন কতশত মানুষ আমাদের আশেপাশে খুন হচ্ছে, গুম হচ্ছে। আমরা পুরাতন কাসন্দি নিয়ে খুব বেশি ঘাটাঘাটি করতে পছন্দ করি।’

এই মন্তব্যের পর ক্ষোভে ফেটে পড়েন বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীরা। এ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ওই ছাত্রীকে আইনের আওতায় আনার পাশাপাশি তাকে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বহিষ্কারের দাবি জানান তারা। এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি রবিউল ইসলাম পলাশ বলেন, ‘বিষয়টি খুবই ন্যাক্কারজনক। জাতির পিতার খুনির পক্ষে কথা বলেছে ওই ছাত্রী। জাতির পিতাকে অস্বীকার করলে স্বাধীনতা ও বাংলাদেশকে অস্বীকার করা হয়। আমরা বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের কাছে ওই ছাত্রীর বহিষ্কারের দাবি জানাচ্ছি।’ এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. হারুন উর রশিদ আসকারী বলেন, ‘ওই ছাত্রী গুরুতর অপরাধ করেছে। আমরা এ ব্যাপারে ব্যবস্থা নিব।’

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।