অনন্ত জলিলকে কড়া জবাব দিলেন হিরো আলম

১৬ জুলাই ২০২০, ৮:১১:১৬

নিজের ছবি থেকে হিরো আলমকে হঠাৎ করেই বাদ দিয়েছেন চিত্রনায়ক ও প্রযোজক অনন্ত জলিল। আনুষ্ঠানিকভাবে বৃহস্পতিবার (১৬ জুলাই) ফেসবুক পেজে স্ট্যাটাস দিয়ে বিষয়টি জানিয়েছেন জলিল। এর জবাবে ফেসবুক লাইভে এসেছিলেন হিরো আলম।

বিডি২৪লাইভের পাঠকদের জন্য হিরো আলমের ফেসবুক লাইভের সেই বক্তব্য হুবহু তুলে ধরা হলো, আপনারা সবাই শুনেছেন অনন্ত জলিলের সিনেমা থেকে হিরো আলমকে বাদ দেয়া হয়েছে। বাদ দেয়ার কারণ লিখে অনন্ত জলিল নিজেও ফেসবুকে একটি পোস্ট দিয়েছেন। তিনি বলেছেন, আমার কিছু স্ক্যান্ডাল ভিডিও ও জায়েদ খানের বিরুদ্ধে কথা বলায় তিনি আমাকে তার সিনেমা থেকে বাদ দিয়েছেন। এগুলো সবই মিথ্যা কথা।

হিরো আলম সব সময় সত্য কথা বলে এবং মৃত্যুকে ভয় পায় না। মূল কথা হলো বুধবার (১৫ জুলাই) এফডিসিতে প্রযোজক সমিতিতে ১৮ দলের একটি সংবাদ সম্মেলন ছিল। সেখানে অনেকেই অনেক বক্তব্য দিয়েছেন। আমাকেও অনুরোধ করা হয় কিছু বলার জন্য। সেখানে আমি জায়েদ খানের পক্ষে বা বিপক্ষে কোনো মন্তব্যই করিনি। বৃহস্পতিবার (১৬ জুলাই) দুপুরে অনন্ত জলিল ভাই আমাকে ফোন করে বলেন, আমি অনেক বড় মুখ করে জায়েদ খানের সাথে তোমাকে মিলিয়ে দিয়েছি। তুমি আমার বড় মুখ ছোট করে দিলে। তুমি কাল জায়েদ খানের বিরুদ্ধে কথা বলেছ। তুমি আমার সম্মান রাখনি, তাই আমিও তোমাকে আমার ছবি থেকে বাদ করে দিলাম।

যাই হোক, উনি আমাকে ছবি থেকে বাদ দিলেও আমার দুঃখ নেই। সত্য কথা বললে, যদি সেটা অন্যায় হয়ে যায় তাহলে আমার কিছু যায় আসে না। হিরো আলম কারো সহযোগিতায় এ জায়গায় আসেনি। আমি কোনো দিন অনন্ত জলিলের ছবিতে অভিনয়ের সুযোগ চেয়ে তাকে ফোনও দেইনি। হিরো আলম কখনো অনন্ত জলিলের পায়ের নিচে মাথা নত করে থাকবে না ছবিতে অভিনয়ের জন্য। তবে অনন্ত জলিলকে আমি বলতে চাই, হিরো আলমকে সবাই ব্যবহার করে। আপনিও আমাকে ব্যবহার করলেন। ছোট সিনেমা বানালেও আমিও একজন প্রযোজক। আমাকে কেউ ছবি থেকে বাদ দিলেও আমার কিছু যায় আসে না।

অনন্ত জলিল অনেক দানশীল ব্যক্তি। তার মানে এই না, সাইনিং মানির ৫০ হাজার টাকা আমি উনাকে ফেরত দেব না। দরকার হলে এরচেয়েও বেশি দিয়ে দেব। আপনার হয়তো টাকা আছে। তবে টাকার গরম বা অহংকারে সবাই কিনতে আসবেন না দয়া করে। অনন্ত জলিল নিজে কিছু দেখেননি। জায়েদ খানের কান কথা শুনে আমাকে সিনেমা থেকে বাদ দিয়েছেন। তাই অনন্ত জলিলের কাছে অনুরোধ, আমি সেই সংবাদ সম্মেলনে কি বলেছি তা আগে আপনি ভিডিওতে দেখবেন ও শুনবেন। তারপর আমার বিরুদ্ধে অভিযোগ জানাবেন।

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।