গোপালগঞ্জে তালা ভেঙ্গে মেসে চুরি, মূল্যবান সামগ্রী উধাও

১৭ আগস্ট ২০২০, ১২:১৪:১৫

আশরাফুল আলম, বশেমুরবিপ্রবি থেকে: করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে গত ১৮ মার্চ দেশের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো বন্ধ ঘোষণা করা হয়। তড়িঘড়ি করেই হল ও মেস ত্যাগ করেন শিক্ষার্থীরা। বিশ্ববিদ্যালয়গুলো প্রথম মাত্রায় স্বল্প দিন বন্ধের ঘোষণা থাকলেও সেটি গড়িয়েছে অনির্দিষ্টকালে। এর ফলে প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র নিয়ে যেতে পারেননি কোন শিক্ষার্থী। শিক্ষা প্রতিষ্ঠান দীর্ঘ দিনের বন্ধের সুযোগে, বিশ্ববিদ্যালয়ের আশপাশের এলাকার মেসগুলোতে বেড়েছে চোরের উপদ্রব। দফায় দফায় গোপালগঞ্জে ঘটেছে বহু মেস বাসা চুরির ঘটনাও। এতে করে উদ্বেগও বাড়ছে শিক্ষার্থীদের।

গত দুই মাসে এখন পর্যন্ত গোপালগঞ্জের বিভিন্ন এলাকায় প্রায় সাতটি ছাত্রাবাসে চুরির ঘটনা ঘটেছে বলে জানা গেছে৷ এ সকল ছাত্রাবাসে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বশেমুরবিপ্রবি) শিক্ষার্থীরা ভাড়া থাকেন। একের এক চুরির ঘটনায় আতঙ্কে রয়েছেন শিক্ষার্থীরা৷ অনেকে চুরির ভয়ে মেস ছেড়েও দিয়েছেন।

সর্বশেষ রবিবার (১৬ আগস্ট) বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি বাসভবনের পেছনের ৪ তলা এক মেসের তালা ভেঙে শিক্ষার্থীদের মূল্যবান সামগ্রী চুরির ঘটনা ঘটে। তালা ভেঙ্গে একটি সাইকেল, একটি মনিটর, একটি মাদারবোর্ড, ট্রাঙ্ক ভেতরের মালামাল, একটি রাউটার চুরি হয়। এছাড়া ঘরের সব জিনিসপত্র তছনছ করা হয়।

ওই মেসের ভুক্তভোগী রসায়ন বিভাগের শিক্ষার্থী রাকিবুল ইসলাম জানান, হঠাৎ করে ছুটির ঘোষণার কারণে বাসায় পরার জন্য কয়েকটা জামাকাপড় ও কয়েকটি রিডিংশিট ছাড়া আর কিছুই নিয়ে যেতে পারেননি।

রুমমেটের কাছ থেকেই চুরির সংবাদ জানতে পারেন তিনি। রুমমেট মেসে গিয়ে বাড়ির মালিককে নিয়ে রুমে ঢুকে দেখেন, রুমের সবকিছুই তছনছ করা। তাছাড়া তালা ভেঙ্গে চুরি করে আবার ভাঙ্গা তালা ঝুলিয়েই পালিয়ে যায় চোর।

তিনি আরও বলেন, ছুটির সময়টায় কোনো সংঘবদ্ধ চক্র ছাত্রাবাসগুলোতে চুরির ঘটনা ঘটাচ্ছে কিনা সে বিষয়ে পুলিশের একটি তদন্ত করা উচিত। পাশাপাশি বাড়ির মালিক ও স্থানীয় কাউন্সিলের মধ্যে সমন্বয় করে এলাকাগুলোতে পর্যাপ্ত রোডলাইট ও সিকিউরিটি গার্ডের ব্যবস্থা করা উচিত। আগামীকাল থানায় মামলা করার বিষয়েও ভাবছেন তিনি।

উল্লেখ্য, এর আাগেও গোবরা ,চৌরঙ্গী সংলগ্ন এলাকা এবং নবীনবাগে বেশ কয়েকটি মেসে চুরির ঘটনা ঘটেছে। যাতে নগদ টাকা,সার্টিফিকেট, ল্যাপটপ, ডেক্সটপ কম্পিউটার,ক্যামেরা মোবাইল ফোন, ফ্যান ও সাউন্ড সিস্টেমসহ মূল্যবান জিনিসপত্র চুরি হয়েছে।

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।