নালিতাবাড়ীতে ভোগাই নদীর বিধ্বস্ত বাঁধ দিয়ে পানি ঢুকে কয়েক গ্রাম প্লাবিত

২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০, ৫:৪৭:০৫

শেরপুরের নালিতাবাড়ীতে টানা বর্ষণ ও উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে উপজেলার ভোগাই নদীর ভেঙ্গে যাওয়া বাঁধ দিয়ে তীব্র বেগে পানি প্রবেশ করে আকস্মিক বন্যা কবলিত হয়ে পড়েছে নালিতাবাড়ী শহরের নিচপাড়া, জেল খানা রোড, মরিচপুরান ইউনিয়নের ফকিরপাড়া, দক্ষিণ কোন্নগর, মরিচপুরান ও খলাভাঙ্গাসহ কয়েক গ্রাম। এছাড়াও ভাঙ্গন দেখা দিয়েছে শহরের তীর রক্ষা বাঁধে।

শুক্রবার (২৫ সেপ্টেম্বর) বিকেল থেকে এসব এলাকা বন্যা কবলিত হয়ে পড়ে। এছাড়াও চেল্লাখালী ও ভোগাই নদীর ঢলের পানি প্রবেশ করে উপজেলার যোগানিয়া ও কলসপাড় ইউনিয়নের বেশ কয়েকটি গ্রামের নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে।

ভুক্তভোগী এলাকাবাসী জানান, গত সপ্তাহে পাহাড়ি ঢলের পানির তোড়ে শহরের নিচপাড়া মহল্লায় ভোগাই নদীর বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধ ভেঙ্গে আশপাশ এলাকা প্লাবিত হয়। পরদিন ঢলের পানি নেমে গেলেও দ্রুত ভেঙ্গে যাওয়া বাঁধ সংস্কার করা হয়নি। ফলে শুক্রবার বিকেলে নদীর পানি বিপদ সীমার উপরে গেলে পুনরায় ভেঙ্গে যাওয়া বাঁধের অংশ দিয়ে ঢলের পানি প্রবেশ করে নিচপাড়া ও জেলখানা রোড মহল্লা আকস্মিক বন্যা কবলিত হয়ে পড়ে।

এদিকে, চলতি বর্ষা মৌসুমের শুরুতেই ভোগাই নদীর ফকিরপাড়ার একাধিক স্থানে বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধ ভেঙ্গে যায়। গেল সপ্তাহের ঢলে ভেঙ্গে যায় গোবিন্দগর গ্রামের ভোগাই নদীর বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধ। ফলে এসব স্থান দিয়ে তীব্র বেগে ঢলের পানি আশপাশের এলাকায় প্রবেশ করছে। ভোগান্তিতে পড়েছে ওইসব এলাকার মানুষ।

এছাড়াও পাহাড়ি ঢলের পানি প্রবেশ করে উপজেলা যোগানিয়া ও কলসপাড় ইউনিয়নের বেশ কয়েকটি গ্রাম প্লাবিত হয়েছে। প্রবল টানা বর্ষণে শহরসহ বিভিন্ন এলাকায় জলাবদ্ধতা দেখা দিয়েছে।

এ ব্যাপারে নালিতাবাড়ী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাহফুজুল আলম মাসুম জানান, দ্রুত ভাঙ্গণ অংশ ও বন্যা কবলিত এলাকা পরিদর্শন করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য সরকারকে অবহিত করা হবে।

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।