নতুন করে সমালোচনার মুখে সাব্বির

১৬ জুন ২০২১, ১০:০৪:৫০

সাব্বির রহমান। বাংলাদেশ ক্রিকেট টিমে থাকা একজন অন্য রকম সদস্য। ছোট্ট ক্যারিয়ারে বহু বিতর্কের জন্ম দিয়েছেন এরই মধ্যে। সম্প্রতি এবার শেখ জামাল ধানমন্ডির ইলিয়াস সানিকে লক্ষ্য করে ইট ছুড়ে আবার নেতিবাচক খবরের শিরোনাম হলেন লেজেন্ডস অব রূপগঞ্জের সাব্বির রহমান। আজ বুধবার ( ১৬ জুন) ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ টি-টোয়েন্টিতে শেখ জামাল বনাম ওল্ডডিওএইচএসের মধ্যকার ম্যাচ চলাকালীণ এ ঘটনা ঘটে।

প্রসঙ্গত, সাকিবের পর পর এবার নতুন করে সমালোচনার তোপে পড়লেন সাব্বির। গালিগালাজ ও ইট ছুঁড়ে মারার ঘটনায় সাব্বিরের বিরুদ্ধে ক্রিকেট কমিটি অব ঢাকা মেট্রোপলিস (সিসিডিএম) বরাবর এরই মধ্যে লিখিত অভিযোগ করেছে ইলিয়াস সানীর ক্লাব শেখ জামাল ধানমন্ডি। চিঠিতে তার বিরুদ্ধে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছে ক্লাবটি।

বিতর্কের তালিকায় আরেকটি খারাপ অধ্যায় যোগ করলেন মাঠের এক খেলোয়াড়কে ইট ছুড়ে মেরে। বুধবার ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ টি-টোয়েন্টিতে বিকেএসপির তিন নম্বর মাঠে ওল্ড ডিওএইচএসের বিপক্ষে লড়ছিল শেখ জামাল। ডিওএইচএসকে ১২১ রানের লক্ষ্য দিয়ে শেখ জামাল তখন ফিল্ডিংয়ে। ডিপ স্কয়ার লেগে ফিল্ডিং করছিলেন শেখ জামালের স্পিনার ইলিয়াস সানি। এমন সময় হঠাৎ মাঠের বাইরে থেকে তাকে ইট ছুড়ে মারেন লেজেন্ডস অব রূপগঞ্জের ক্রিকেটার সাব্বির।

শুধু ইট ছুড়ে মেরেই ক্ষান্ত হননি সাব্বির, ইলিয়াস সানিকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করতে থাকেন রূপগঞ্জের এই ক্রিকেটার। শেখ জামাল সূত্রে জানা গেছে, পুরনো ক্ষোভ থেকেই এমনটি করতে পারেন সাব্বির।

ইলিয়াস সানিকে ইট ছুড়ে মারার ঘটনায় ক্ষিপ্ত শেখ জামাল। ইতোমধ্যে ক্লাবটি ক্রিকেট কমিটি অব ঢাকা মেট্রোপলিসের (সিসিডিএম) কাছে অভিযোগ করেছে। সিসিডিএম চেয়ারম্যান ও বিসিবি পরিচালক কাজী ইনাম বরাবর চিঠি পাঠিয়ে সাব্বিরের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়ার আবেদন করেছে শেখ জামাল। সিসিডিএমে পাঠানো চিঠিতে শেখ জামাল লিখেছে, ‘অত্যন্ত দুঃখের সঙ্গে জানাচ্ছি যে ১৬ জুন ২০২১ তারিখে বিকেএসপির ৩ নম্বর মাঠে শেখ জামাল ধানমন্ডি বনাম ওল্ড ডিওএইচএস স্পোর্টসের খেলা চলাকালীন শেখ জামালের খেলোয়াড় ইলিয়াসকে লেজেন্ডস অব রূপগঞ্জের খেলোয়াড় সাব্বির রহমান মাঠের বাইরে থেকে বিনা কারণে ইট ছুড়ে মারেন।’

চিঠিতে আরও লিখেছে, “অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ ও উচ্চস্বরে বর্ণবৈষম্যমূলক আচরণ করে (সাব্বির) বলেন যে ‘ওই কাইল্যা, কাইল্যা, কাইল্যা ইলিয়াস।’ একজন পেশাদার ক্রিকেট খেলোয়াড় হিসেবে এমন আচরণ শুধু অশোভনীয়ই নয়, শাস্তিযোগ্য অপরাধও বটে। এমতাবস্থায়, সাব্বিরের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করার জন্য আপনাকে বিশেষভাবে অনুরোধ জানানো যাচ্ছে।”

এ ব্যাপারে কথা বলার জন্য সাব্বিরের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তার ফোন বন্ধ পাওয়া গেছে।

প্রসঙ্গত, এর আগে অনেকবার বিতর্কিত ঘটনা ঘটিয়ে ক্ষমা চেয়েছেন সাব্বির। কিন্তু বারবার একই ভুলে নেতিবাচক খবরের শিরোনামে আসছেন তিনি।

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।