করোনায় ৪ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ৪৪৬

২৩ জুলাই ২০২২, ৪:৫৩:২৬

দেশে মহামারি করোনা ভাইরাসে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মোট মৃত্যু দাঁড়াল ২৯ হাজার ২৬২ জনে। একই সময়ে ৪৪৬ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২০ লাখ ১ হাজার ৩৪৫ জনে। শনিবার (২৩ জুলাই) স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে পাঠানো করোনাবিষয়ক নিয়মিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ২৪ ঘণ্টায় করোনা থেকে সুস্থ হয়েছেন ১ হাজার ৪৩৪ জন। এ পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ১৯ লাখ ৩৪ হাজার ৬৯৩ জন। ২৪ ঘণ্টায় ৪ হাজার ৪৪৭টি নমুনা সংগ্রহ করা হয়। পরীক্ষা করা হয় ৪ হাজার ৪১৫টি নমুনা। পরীক্ষার বিপরীতে শনাক্তের হার ১০ দশমিক ১০ শতাংশ। মহামারির শুরু থেকে এ পর্যন্ত মোট শনাক্তের হার ১৩ দশমিক ৭৬ শতাংশ।

বিশ্বে মহামারি করোনা ভাইরাসে মৃত্যু ও দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা আরো বেড়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় বিশ্বব্যাপী করোনায় ১ হাজার ৭৫৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ সময় রোগী শনাক্ত হয়েছে ৮ লাখ ৬১ হাজার ৫৮৮ জন। এতে বিশ্বে এখন পর্যন্ত মোট করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৫৭ কোটি ৩৫ লাখ ১ হাজার ২১৩ জন। মৃত্যু হয়েছে ৬৪ লাখ ৭০২ জনের। আজ শনিবার (২৩ জুলাই) সকালে করোনার হিসাব রাখা ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটারস থেকে এ তথ্য পাওয়া গেছে।

ওয়ার্ল্ডোমিটারসের সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় সবচেয়ে বেশি ৩০৯ জনের মৃত্যু হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রে। আক্রান্তের শীর্ষে জাপান। দেশটিতে ১ লাখ ৮০ হাজার ৮৮৬ জন আক্রান্ত হয়েছেন।এ ছাড়া যুক্তরাষ্ট্রে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ১ লাখ ৪ হাজার ১৫১ জন। ফ্রান্সে আক্রান্ত হয়েছেন ৭৪ হাজার ৩৪৮ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ১১৩ জন, ইতালিতে আক্রান্ত হয়েছে ৭১ হাজার ৭৫ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ১৫৫ জন, দক্ষিণ কোরিয়ায় আক্রান্ত হয়েছে ৬৮ হাজার ৫৭৯ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৩১ জন, ব্রাজিলে মৃত্যু হয়েছে ২৭৫ জন এবং আক্রান্ত হয়েছেন ২৪৪ জন, স্পেনে মৃত্যু হয়েছে ১৮১ জন এবং আক্রান্ত হয়েছেন ২৪ হাজার ২৩৪ জন। মেক্সিকোতে মৃত্যু হয়েছে ১১৫ জন এবং আক্রান্ত হয়েছেন ৩৩ হাজার ৬৬০ জন। এছাড়া বিশ্বে এখন পর্যন্ত করোনা থেকে সুস্থ হয়েছেন ৫৩ কোটি ৩৩ লাখ ৬৩ হাজার ৯৮৩ জন।

উল্লেখ্য,২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীনের হুবেই প্রদেশের উহান শহরে বিশ্বের প্রথম করোনায় আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়। করোনায় প্রথম মৃত্যুর ঘটনাটিও ঘটেছিল চীনে।তারপর অত্যন্ত দ্রুতগতিতে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে ছড়িয়ে পড়তে শুরু করে প্রাণঘাতী এই ভাইরাসটি। পরিস্থিতি সামাল দিতে ২০২০ সালের ২০ জানুয়ারি বিশ্বজুড়ে জরুরি অবস্থা জারি করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)। কিন্তু তাতেও অবস্থার উন্নতি না হওয়ায় অবশেষে ওই বছরের ১১ মার্চ করোনাকে মহামারি হিসেবে ঘোষণা করে ডব্লিউএইচও।

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।