শিশুরা যখন সড়কের রাজা, দুর্ঘটনা তখন নিরুপায়

২৭ অক্টোবর ২০২২, ৬:০১:৫৫

দেশে যখন নিরাপদ সড়ক চাই আন্দোলন চলছে, ঠিক তখনই সড়কে বেড়েছে শিশুদের হাতে যানবাহন চলাচলের হিড়িক। যে বয়সে থাকার কথা স্কুলে, সে বয়সে ড্রাইভিংকে পেশা হিসেবে বেছে নিয়েছে অপ্রাপ্ত বয়স্ক শিশুরা। দেশের সর্বোত্র ছড়িয়ে গেছে শিশুশ্রম নামের এই ব্যাধি। এক্ষেত্রে পিছিয়ে নেই বরগুনার আমতলীও। বেশীরভাগ ইজিবাইক, মাহিন্দ্রা সহ ঝুঁকিপূর্ণসব যানবাহন চলছে শিশুদের হাতেই। আমতলীর ৭টি ইউনিয়ন, ১টি পৌরসভাসহ বিভিন্ন জায়গায় নিয়ম ভেঙ্গে ইজিবাইক নিয়ে দাপিয়ে বেড়াচ্ছে শিশুরা। যথা কারনে প্রতিনিয়ত ঘটে চলছে দুর্ঘটনা।

যেখানে সেখানে গাড়ি পার্কিং করে যাত্রী উঠানামা করাচ্ছেন, সৃষ্টি করছেন যানযটের। এসব চালকরা অপ্রাপ্ত বয়স্ক ও প্রশিক্ষন প্রাপ্ত না হওয়ায় ঘটিয়ে যাচ্ছে দুর্ঘটনা। ইজিবাইক চালোকদের বেশীরভাগ বয়সই ১২-১৩ বছরের কম। পৌর কর্তৃপক্ষ এইসব ইজিবাইক শুধুমাত্র পৌর এলাকায় চালানোর অনুমতি দিলেও তারা মহাসড়কে দ্রুতগতির যানবাহনের সাথে তাল মিলিয়ে যাত্রী বহন করছে। এইসব চালকরা বেশীরভাগই দরিদ্র পরিবিারের। সংসারের অভাব ঘুচোতে বেছে নিয়েছেন এসব ঝুকীপূর্ণ পেশা। যথা কারনে এদের শতকরা ৮০জন চালকেই জানে না সড়কের নিয়মনীতি।

ইজিবাইক চালকদের একজন জানান, তিনি ৪ বছর ধরে ইজিবাইক চালাচ্ছেন। তবে যে হারে প্রতিদিন নতুন নতুন ইজিবাইক রাস্তায় নামছে তাতে যানজট সৃষ্টি হচ্ছে। তাছাড়া এসব নতুন চালকেরা আইন কানুন মানে না। কে কত টাকা আয় করবে সবাই সেই প্রতিযোগিতায় ব্যস্ত।

বিষয়টি নিয়ে আমতলী পৌরসভার মেয়র মো. মতিয়ার রহমান বলেন, আমরা শিশুশ্রম নিরসনে কাজ করে যাচ্ছি। অটো, মাহিন্দ্রা, রিক্সাসহ সকল ধরনের যানবাহনে যাতে কোনো শিশুরা কাজ না করে সেই বিষয়ে পদক্ষেপ নেওয়ার চেষ্টা করছি। তবে শিশুশ্রম বন্ধে সরকারি বেসরকারি সকল প্রতিষ্ঠান একসাথে কাজ করলে এ সমস্যার সমাধান হবে।

আমতলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এ কে এম মিজানুর রহমান বলেন, ইতিমধ্যে বিষয়টি আমাদের নজরে এসেছে। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নির্দেশনা অনুযায়ী শীঘ্রই মোবাইল কোর্ট পরিচালনার মধ্য দিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

এ বিষয়ে আমতলী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার (ভারপ্রাপ্ত) মুঠোফোনে একাধিকবার ফোন দিয়েও যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।