১২ বছর আগে মারা যাওয়া বিএনপি নেতাকে গ্রেপ্তার করতে বাড়িতে পুলিশ

১০ নভেম্বর ২০২২, ৯:৪৪:০৬

আগামী শনিবার (১২ নভেম্বর) ফরিদপুরে বিএনপির বিভাগীয় গণসমাবেশের আগে বিএনপির নেতা-কর্মীদের বাড়িতে বাড়িতে পুলিশ অভিযান শুরু করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এ অভিযান থেকে বাদ যায়নি ১২ বছর আগে মারা যাওয়া বাচ্চু মিয়া আলী নামে এক বিএনপি নেতার বাড়িও। মঙ্গলবার (৮ নভেম্বর) রাত ১১টার দিকে ওই নেতাকে গ্রেপ্তার জন্য তার বাসায় পুলিশ অভিযান চালিয়েছে।

জানা গেছে, বাচ্চু মিয়া ২০১০ সালের ২৮ আগস্ট মারা যান। পরে তাকে ওই এলাকার মিয়াপাড়া কবরস্থানে দাফন করা হয়। মঙ্গলবার রাতে ওই বাড়িতে ছিলেন বাচ্চু মিয়ার স্ত্রী মৌসুমী আলী, ছেলে মাহির আরাফাত আলী (১৬) ও মেয়ে অন্তরা মালিয়া (২৫)। তবে তারা কেউই রাজনীতি করেন না।

বাচ্চু মিয়ার স্ত্রী মৌসুমী আলী জানান, মঙ্গলবার রাতে পুলিশের দুই সদস্য বাড়ির সামনে এসে দরজায় ধাক্কা দিয়ে ডাকাডাকি করতে থাকেন। এ সময় তারা বলেন, আমরা ঢাকা থেকে এসেছি। দরজা খুলুন, বাচ্চু মিয়া আলীকে ডাকেন আমরা ওনাকে নিতে এসেছি। এ সময় আমি তাদের বলি, তাকে (বাচ্চু মিয়া) নিতে হলে কবরস্থান থেকে নিয়ে যেতে হবে। তিনি বেঁচে নেই। তখন পুলিশ সদস্যরা বলেন, দরজা না খুললে, কীভাবে খুলতে হয় তা আমরা জানি। তখন আমি বলি, ‘রাতে দরজা খোলা যাবে না, আপনারা অপেক্ষা করেন সকালে দরজা খুলব। পরে বুধবার সকালে থানায় গিয়ে স্বামীর মৃত্যুসনদ জমা দেই।

ফরিদপুর কোতয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এম এ জলিল সাংবাদিকদের বলেন, পুলিশ ওয়ারেন্ট তামিল করতে ওই বাড়িতে গিয়েছিল। বাচ্চু মিয়া নয়, তার ছেলের নামে ওয়ারেন্ট ছিল। আদালত থেকে পাওয়া ওয়ারেন্টেও তথ্যগত ত্রুটি থাকতে পারে। আমরা ওয়ারেন্ট যাচাই করে দেখছি।

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।