BD24Live
ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৩ মার্চ ২০১৭, ৯ চৈত্র ১৪২৩

কুপির আগুনে ঝলসে যাওয়া তহমিনার মৃত্যু

২০১৬ ফেব্রুয়ারি ২৯ ১১:২৭:২৫
কুপির আগুনে ঝলসে যাওয়া তহমিনার মৃত্যু

দিনাজপুর প্রতিনিধি: যৌতুকের দাবিতে স্বামী ও শাশুড়ির ছুড়ে মারা কুপির আগুনে ঝলসে যাওয়া রংপুরের গৃহবধূ তহমিনা বেগম (৩২) গতকাল রোববার রাতে মারা গেছেন। গতকাল রাতে চিকিৎসার জন্য রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে ঢাকায় যাওয়ার সময় মিঠাপুকুর এলাকায় মারা যান তিনি। ময়নাতদন্তের জন্য তহমিনা বেগমের মরদেহ রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে।

রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটের দায়িত্বে নিয়োজিত চিকিৎসক মারুফুল ইসলাম বলেন, তহমিনার লাশ ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতালে রাখা হয়েছে। গোয়েন্দা বিভাগের কর্মকর্তা নূরে আলম (হাসপাতালের দায়িত্বে) বলেন, যৌতুকের দাবিতে নির্যাতনের শিকার তহমিনাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় নেওয়ার পথে রংপুরের মিঠাপুকুরে মারা যান। তাঁর লাশ ময়নাতদন্তের জন্য এখন হাসপাতাল মার্গে রাখা হয়েছে।

গত বৃহস্পতিবার মধ্যরাতে যৌতুকের দাবিতে রংপুরের পীরগাছা উপজেলার দাদন গ্রামের গৃহবধূ তহমিনা বেগমকে নির্যাতন করে হাত-পা ভেঙে দেওয়ার অভিযোগ করেছিল তাঁর পরিবার। চর-থাপড়ে তহমিনার একটি কান ক্ষতিগ্রস্ত হয়। স্বামী ও শাশুড়ি মিলে আগুন দিয়ে ঝলসে দেন তাঁকে। পরদিন শুক্রবার সন্ধ্যায় তাঁকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সার্জারি ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়।

গত শনিবার সকালে নেওয়া হয় রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে। উন্নত চিকিৎসার জন্য সেখান থেকে ঢাকায় যাওয়ার পথেই পৃথিবী থেকে চলে যান নির্মম নির্যাতনের শিকার এই নারী। এ ঘটনায় হওয়া মামলায় তহমিনার স্বামীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

পাঠকের মতামত:

জেলার খবর এর সর্বশেষ খবর

জেলার খবর - এর সব খবর



রে