ফখরুল-মওদুদ তর্ক-বিতর্ক, যা বললেন বিএনপি নেতা

   
প্রকাশিত: ৫:০৫ অপরাহ্ণ, ২১ জুন ২০১৯

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপির এমপিদের শপথ গ্রহণের বিষয় নিয়ে দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও স্থায়ী কমিটির সদস্য মওদুদ আহমদের মধ্যে যে তর্ক-বিতর্ক হয়েছে সে বিষয়ে দলটির ভাইস চেয়ারম্যান নিতাই চন্দ্র রায় বলেছেন, একটা দলের অভ্যন্তরীণ একটি মিটিংয়ে তর্কাতর্কি হতেই পারে।

বৃহস্পতিবার (২০ জুন) রাতে একটি বেসরকারি টেলিভিশনের সরাসরি টক-শো অনুষ্ঠানে অংশ নিয়ে তিনি এ কথা বলেন।

সঞ্চালকের এক প্রশ্নের জবাবে নিতাই চন্দ্র রায় বলেন, এটা দলের অভ্যন্তরীণ বিষয়। এটা টেলিভিশন টকশো-তে আলোচনা করার বিষয় নয়।

বিএনপিতে কোন বিভেদ নেই দাবি করে সঞ্চালকের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, আপনারা একটা কথা শুনেছেন। যদি এখানে জাতীয় পার্টিতে শুনেন, আওয়ামী লীগের শুনেন; তাহলে আপনি হাজারটা শুনবেন।

বিএনপির এ ভাইস চেয়ারম্যান বলেন, আমরা স্বীকার করছি, আমাদের দলের ভেতরে অভ্যন্তরীণ দ্বন্দ্ব আছে। এটা সব দলেই থাকবে। দ্বন্দ্ব হচ্ছে বিকাশের লক্ষণ। দ্বন্দ্ব বিকাশকে সামনে নিয়ে যায়। তবে আমাদের দলের ভেতরে কোন বিভেদ নেই।

তৃণমূল থেকে শুরু করে দলের জাতীয় পর্যায় পর্যন্ত একটা লোকও কখনো বিএনপি ছেড়ে অন্য দলে যায়নি বলেও দাবি করেন বিএনপির এ ভাইস চেয়ারম্যান।

তিনি আরও বলেন, বিএনপি একটি জাতীয়তাবাদী বৃহত্তর রাজনৈতিক দল। যে পরিস্থিতিতে বিএনপি এসেছে, বিএনপি কখনই নিঃশেষ হবে না।

উল্লেখ্য, গত শনিবার দলটির স্থায়ী কমিটির বৈঠকে ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ বলেন, নির্বাচনের পর ফল প্রত্যাখ্যান করা হল; সংসদে যাব না বলে জাতিকে জানানো হল; তাহলে একটি অবৈধ সংসদে বিএনপির চার এমপি কার সিদ্ধান্তে শপথ নিলেন?

সরাসরি মির্জা ফখরুলকে উদ্দেশ্য করে মওদুদ আহমদ বলেন, আপনি এমপি হয়েও কার সিদ্ধান্তে শপথ নিলেন না? আর সংরক্ষিত নারী আসনে প্রার্থী বাছাই এবং বগুড়া-৬ আসনে উপনির্বাচনে দলীয় প্রার্থী নির্ধারণে বিএনপির স্থায়ী কমিটিকে কেন অবগত করা হলো না? এরফলে কি স্থায়ী কমিটিকে অপমান করা হয়নি? আপনি কার ব্যাগ ক্যারি করতে এ সিদ্ধান্ত নিলেন- বলেও ফখরুলের কাছে প্রশ্ন রাখেন তিনি।

মওদুদ আহমদের কথা শুনে ক্ষুদ্ধ হয়ে মির্জা ফখরুল বলেন, হোয়াট ডু ইউ মিন? এসব বিএনপির হাইকমান্ডের সিদ্ধান্তেই হয়েছে। আর ব্যাগ ক্যারি করার অভ্যাস আমার নেই, আপনারই আছে। আপনি তো এরশাদের দল করেছেন এবং তার ব্যাগ ক্যারি করেছেন।

এসময় ফখরুল বলেন, এভাবে দায়িত্ব পালন সম্ভব নয়। আপনারা যদি মনে করেন, তাহলে দায়িত্ব ছেড়ে দেই?

এমআর/এনই

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: