প্রচ্ছদ / বিনোদন / বিস্তারিত

প্রেগন্যান্সির শেষপর্যায়ে এসেও জজকোর্টে পিয়া

   
প্রকাশিত: ৭:২১ অপরাহ্ণ, ২১ জানুয়ারি ২০২১

আন্তর্জাতিক খ্যাতি সম্পন্ন বাংলাদেশি মডেল পিয়া জান্নাতুল সন্তান সম্ভবা। প্রথমবারের মতো মাতৃত্বের স্বাদ পেতে যাচ্ছেন তিনি। আগামী ফেব্রুয়ারির দিকে নতুন সদস্য আসার কথা তার ঘরে। গত অক্টোবরে ‘বেবি বাম্পের’ ছবি স্যোশাল মিডিয়ায় প্রকাশ করে ভক্ত ও শুভাকাক্ষীদের এই সুখবর জানান পিয়া। এরপর তিনি বিভিন্ন সময়ে ফেসবুকে তার সর্বশেষ খবর জানান দিয়েছেন। প্রকাশ করেছেন স্থিরচিত্র।

মাসখানেক পরেই মা হতে চলেছেন মডেল, অভিনেত্রী, আইনজীবী জান্নাতুল ফেরদৌস পিয়া। প্রেগন্যান্সির শেষপর্যায়ে এসেও তিনি মডেলিং, ব্যায়াম, কর্মস্থলের ব্যস্ততা সবই করছেন স্বাভাবিক নিয়মেই। নিত্যকার জীবনে বুধবার (২০ জানুয়ারি) সকালে ঘুম থেকে উঠে আইনজীবী পিয়া ছোটেন তার কর্মস্থলে। ব্যস্ততায় পরা সাদা জামাটা তার গায়ে ঠিকঠাক মানায়নি, সঙ্গে ফরম্যাল প্যান্টটাও। ঢাকা জজ কোর্টে যাবার পথে পড়েন প্রচণ্ড জ্যামে। গাড়িতে ঘুমিয়েও পড়েন তিনি। এরপর আবার সিঁড়ি মাড়িয়ে ওঠেন পাঁচতলায়। এভাবেই চলছে তার জীবন। কথাগুলো সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ইনস্টাগ্রামে নিজেই জানিয়েছেন পিয়া। কখনও কোনো অবস্থাতেই হাল ছাড়তে রাজি নন তিনি। প্রেগন্যান্সির ৩৬তম সপ্তাহ চলছে তার। তবুও অন্যদের মতো শুয়ে-বসে বিশ্রাম নিতে নারাজ। স্বাভাবিক নিয়মেই সব কাজ করে যাচ্ছেন অভিনেত্রী।

গর্ভাবস্থার যে সময়টাতে সাধারণত মায়েরা ঘরে বিশ্রামে থাকেন, সেসময়টাতে পিয়া তার মডেলিং, ফটোশুট, আইন পেশা, শারীরিক ব্যায়াম সবই করে চলেছেন একই নিয়মে। গর্ভকালে অনেকেই যেমন মুটিয়ে যান, সেখানে পিয়া তার স্বাভাবিক ছিপছিপে গড়ন ঠিকই ধরে রেখেছেন। সম্প্রতি বাংলাদেশের প্রথম খেলাভিত্তিক টিভি চ্যানেল টি-স্পোর্টস-এর ছোটপর্দায় নিজের ব্যায়াম করা আর সাধারণ মানুষের ভুল ধারণা নিয়ে কথা বলেন পিয়া জান্নাতুল। দেখুন কী বললেন তিনি।

তিনি বলেন, আমাদের দেশে একটা ভুল ধারণা আছে যে গর্ভাবস্থায় ব্যায়াম করা উচিত নয় এবং সবসময় অন্তত দ্বিগুন পরিমাণ খেতে হবে। আসলে গর্ভধারণের একটা সময় পরে ভ্রূণের বিকাশের জন্য দিনে ২০০-৩০০ ক্যালোরি বেশি গ্রহণ করাই যথেষ্ট।

নাঈম/নিএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: